শিরোনাম

পুতিনের ফোনে ‍ইচ্ছাকৃতভাবে হেরে যায় স্পেন

স্পোর্টস ডেস্ক  |  ১৫:২৪, জুলাই ০২, ২০১৮

বিশ্বকাপের `শেষ ১৬` নকআউট পর্বে শক্তিশালী স্পেনকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছেছে স্বাগতিক দেশ রাশিয়া। খেলার অতিরিক্ত সময়েও ফলাফল ১-১ গোলে অমীমাংসিত থাকায় ম্যাচ টাইব্রেকারে গড়ালে শেষ পর্যন্ত রাশিয়া ৪-৩ গোলে ২০১০ সালের বিশ্বকাপ জয়ী দল স্পেনকে পরাজিত করতে সক্ষম হয়।

রাশিয়ার মতো র‍্যাংকিংএ বহু নিচে থাকা একটি দলের পক্ষে কীভাবে এই জয় সম্ভব হলো-এনিয়ে সোশাল মিডিয়াতে অনেক কথাবার্তা হচ্ছে। কেউ কেউ বলছেন, একটি ফোন কলই কি রুশ দলকে জয়ের জন্যে উজ্জীবিত করেছে?

বিবিসির খবরে বলা হচ্ছে, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ম্যাচ শুরু হওয়ার আগে রুশ ফুটবল দলের ম্যানেজার স্টানিস্লাভ চেরকেসভকে ফোন করেছিলেন। ক্রেমলিনের একজন মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ এই ফোন কলের কথা নিশ্চিত করে বলেছেন, "ম্যাচ শুরু হওয়ার আগে, দুপুরের দিকে প্রেসিডেন্ট কোচকে ফোন করে দলের জন্যে তার শুভ কামনার কথা জানিয়েছিলেন।"

খেলাটি রাজধানী মস্কোতে অনুষ্ঠিত হলেও পুতিন এই ম্যাচ দেখতে মাঠে উপস্থিত ছিলেন না। সৌদি আরবের সাথে উদ্বোধনী ম্যাচে গ্যালারিতে বসে খেলা দেখেছিলেন মি. পুতিন। তার সাথে ছিলেন সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানও। ওই ম্যাচে রাশিয়া ৫-০ গোলে সৌদি আরবকে পরাজিত করেছিল। এখন কোয়ার্টার ফাইনালে খেলবে ফুটবলের বিশ্ব র‍্যাংকিং-এ ৭০ নম্বরে থাকা রাশিয়া। বিশ্বকাপে যে ৩২টি দল খেলছে, র‍্যাংকিং এর হিসেবে তাদের সবার মধ্যে সৌদি আরবের অবস্থান সবচেয়ে নিচে।

প্রথমে সৌদি আরব, তারপর মিশর এবং সবশেষে স্পেনকে হারিয়ে `শেষ ৮` পর্বে পৌঁছালো তারা। এখন কোয়ার্টার ফাইনালের ম্যাচের সময়েও প্রেসিডেন্ট পুতিন মাঠে উপস্থিত থাকবেন কিনা সেটা এখনও নিশ্চিত নয়। ক্রেমলিনের মুখপাত্র মি. পেসকভ আরো জানান, "প্রেসিডেন্ট পুতিন বলেছেন যে চেরকেসভের নেতৃত্বে আমাদের খেলোয়াড়রা ইতোমধ্যেই অসম্ভবকে সম্ভব করেছে। গ্রুপ পর্যায় থেকে তারা পৌঁছে গেছে পরের পর্বে।"

"প্রেসিডেন্ট পুতিন অবশ্য এটাও বলেছেন, স্পেনের সাথে খেলার ফলাফল বাদ দিলেও, আমাদের দেশের কেউই এই দলকে খারাপ বলবে না," বলেন তিনি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত