শিরোনাম

রাশিয়া বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যা যা থাকছে

স্পোর্টস ডেস্ক  |  ১৬:২৩, জুন ১৩, ২০১৮

আর কয়েকঘন্টা পরই শুরু হচ্ছে রাশিয়া ফুটবল বিশ্বকাপ ২০১৮। ফুটবলপ্রেমীরা ‘দ্যা গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’ কে স্বাগত জানাতে মুখিয়ে আছে স্বাগতিক রাশিয়াসহ বিশ্ববাসিও।
বৃহস্পতিবার স্বাগতিক রাশিয়া ও সৌদি আরবের ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠছে রাশিয়া বিশ্বকাপের। তবে তার আগে দর্শকদের চোখ থাকবে জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের উপর। প্রত্যেক বিশ্বকাপেই চোখ ধাঁধানো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দিয়ে বিশ্ববাসীর সামনে নিজস্ব সংস্কৃতি তুলে ধরতে চায় স্বাগতিক দেশগুলো। ব্যতিক্রম হচ্ছে না এবারও। চলুন দেখে নেওয়া যাক কি থাকছে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান কখন: ম্যাচ শুরুর আধ ঘণ্টা আগে, বাংলাদেশ সময় রাত ৮.৩০ এ প্রথম ও ফাইনাল ম্যাচের ভেন্যু মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে শুরু হবে এবারের বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান মাতাবেন যারা: এবারের অনুষ্ঠান মাতানোর মূল দায়িত্ব থাকবে তিনজন আন্তর্জাতিক তারকার উপর। বিশ্বজুড়ে জনপ্রিয় সঙ্গীত তারকা রবি উইলিয়ামস তাঁর সুরের জাদুতে মুগ্ধ করবেন কোটি কোটি দর্শকদের। এছাড়া স্বাগতিকদের প্রতিনিধি হিসেবে তাঁর সাথে যোগ দেবেন জনপ্রিয় রুশ সঙ্গীতশিল্পী আইদা গারিফুলিনা। আর ফুটবলের সবচেয়ে বড় মঞ্চে ফুটবলারদের প্রতিনিধি হয়ে উপস্থিত থাকছেন ব্রাজিলের ২০০২ বিশ্বকাপ জয়ের নায়ক রোনাল্ডো লিমা। বিশ্বকাপের মতো বড় মঞ্চে পারফর্ম করার সুযোগ পেয়ে উল্লসিত উইলিয়ামস, ‘রাশিয়ায় এমন একটি পারফরম্যান্সের জন্য আবার যাওয়ার সুযোগ পেয়ে আমি ভীষণ খুশি ও উত্তেজিত। স্টেডিয়ামে উপস্থিত ৮০ হাজার দর্শকের সামনে ফিফা বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে গাইবো, এটা আমার ছোটবেলার স্বপ্ন।’ রাশিয়ার এই প্রজন্মের অন্যতম জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী আইদা গারিফুলিনাও এমন সুযোগ পেয়ে উচ্ছ্বসিত, ‘আমি কখনো ভাবতেই পারিনি নিজ দেশে এমন একটি অনুষ্ঠানের অংশ হওয়ার সুযোগ পাব আমি।’ এবারের অনুষ্ঠানে সঙ্গীতের উপর জোর দিচ্ছে ফিফা। সে কারণে উইলিয়ামস ও আইদা ছাড়াও অপেরা সঙ্গীতশিল্পী প্লাসিডো ডমিঙ্গো ও পেরুভিয়ান সঙ্গীতশিল্পী হুয়ান ডিয়েগো ফ্লোরেজও থাকবেন মঞ্চ মাতানোর জন্য। সাথে রুশ সংস্কৃতিকে তুলে ধরতে পারফর্ম করবেন ৫০০ নৃত্যশিল্পী ও জিমন্যাস্ট।

কোন চ্যানেলে দেখতে পাবেন:বাংলাদেশ, ভারত, মালদ্বীপ, শ্রীলঙ্কা সহ দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোতে বিশ্বকাপ সম্প্রচারের স্বত্ব পেয়েছে সনি পিকচার্স নেটওয়ার্ক। বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সহ ৬৪ টি ম্যাচ সরাসরি দেখা যাবে সনি টেন টু তে। এছাড়া এইচডি দেখা যাবে সনি টেন ওয়ান এইচডি ও সনি টেন টু এইচডিতে। এছাড়া বাংলাদেশি চ্যানেলগুলোর মধ্যে বিটিভি, মাছরাঙ্গা টেলিভিশন ও নাগরিক টিভিতে দেখা যাবে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।

 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত