শিরোনাম

অস্ট্রেলিয়ার বিদায় ঘন্টা বাজল, ইংল্যান্ড ফাইনালে উঠল

স্পোর্টস ডেস্ক  |  ২৩:২১, জুলাই ১১, ২০১৯

অস্ট্রেলিয়াকে বিদায় করে ফাইনালের টিকিট পেল ইংল্যান্ড। অস্ট্রেলিয়া যেন হারতেই নেমেছিল ২০১৯ বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল। টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়ে শুরু থেকেই ছন্নছাড়া অবস্থা দেখা গেল গতবারের চ্যাম্পিয়নদের।

দুই ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার ও অ্যারন ফিঞ্চ কোনও ভরসা দিতেই পারলেন না। ওয়ার্নার ৯ ও ফিঞ্চ কোনও রান না করেই ফিরে গেলেন প্যাভেলিয়নে।

তিন নম্বরে নামা স্টিভেন স্মিথ শেষ পর্যন্ত হাল ধরেন অস্ট্রেলিয়া ব্যাটিংয়ের।

পিটার হ্যান্ডসকম্ব চার রানে আউট হয়ে যেতেই স্মিথের সঙ্গে লড়াই শুরু করেন অ্যালেক্স ক্যারি। ভালই এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন দুই ব্যাটসম্যান।

কিন্তু ৪৬ রানে আউট হয়ে যান ক্যারি। অস্ট্রেলিয়ার দেয়া মাত্র ২২৪ রানের লক্ষ্যে ইংল্যান্ড মাত্র দুই উইকেট হারিয়ে ইংল্যান্ড খুব সহজেই পৌঁছে যায়।

ম্যাচ জিতে নেয় আট উইকেটে। রোববার ফাইনালে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি ইংল্যান্ড।

এর পর মার্কাস স্তইনিস কোনও রান না করেই ফিরে যান।গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ২২, প্যাট কামিন্স ৬, মিচেল স্টার্ক ২৯ ও জেসন বেহেনড্রফ ১ রান করে ফিরে যান প্যাভেলিয়নে।

তার আগেই অবশ্য ৮৫ রান করে রান আউট হয়ে গিয়েছে‌ন দলের একমাত্র হাফসেঞ্চুরিয়ন স্টিভ স্মিথ। তিনি ১১৯ বল খেলে ৮৫ রান করেন।

৪৯ ওভারে ২২৩ রানে শেষ হয়ে যায় অস্ট্রেলিয়ার ইনিংস।

ইংল্যান্ডের হয়ে তিনটি করে উইকেট নেন ক্রিস ওকস ও আদিল রশিদ। দুই উইকেট জোফরা আর্চারের। এক উইকেট নেন মার্ক উড।

এই বিশ্বকাপে ২২৪ রানের টার্গেট মানে খুবই কম। যার লক্ষ্যে শুরুটাই ভাল করে দেন ব্রিটিশরা। ১২৪ রানের ভিত তৈরি করে দেন দুই ওপেনার। জনি বেয়ারস্টো আউট হন ৩৪ রানে।

এরপর জো রুটকে সঙ্গে নিয়ে লড়াই চালার আর এক ওপেনার জেসন রয়। ৬৫ বলে ন'টি বাউন্ডারি ও পাঁচটি ওভার বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ৮৫ রান করেন তিনি।

বাকি কাজ করে দেন তিন ও চার নম্বরে নামা জো রুট ও ইয়ন মর্গ্যান।

জয়ের রাস্তা দেখিয়েছিলেন প্রথম দুই ব্যাটসম্যান, শেষ করলেন পরের দুই। জো রুট ৪৯ ও ইয়ন মর্গ্যান ৪৫ রান করে অপরাজিত থাকেন।

৩২.১ ওভারে ইংল্যান্ড থামে ২২৬-২-এ। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে একটি করে উইকেট নেন মিচেল স্টার্ক ও প্যাট কামিন্স।

অজি উইকেটকিপারের থুতনিতে আছড়ে পড়ল আর্চারের বিষাক্ত ডেলিভারি

ঘরের মাঠে একটা সময় ইংল্যান্ডের ভবিষ্যৎ সঙ্কটে পড়ে গিয়েছিল। কিন্তু সেমিফাইনালের আগে পর পর জিতে আবার ঘুরে দাঁড়ায় তারা।

তারাই যে এই বিশ্বকাপের অন্যতম দাবিদার ছিল। সেই বিশ্বাসকে সম্মান দিয়েই ফাইনালে রোববার নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি ইংল্যান্ড।

বিদায় ঘন্টা বেজে গেল গতবারের চ্যাম্পিয়নদের।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

অস্ট্রেলিয়া: ৪৯ ওভারে ২২৩ (ওয়ার্নার ৯, ফিঞ্চ ০, স্মিথ ৮৫, হ্যান্ডসকম ৪, কেয়ারি ৪৬, স্টয়নিস ০, ম্যাক্সওয়েল ২২, কামিন্স ৬, স্টার্ক ২৯, বেহরেনডর্ফ ১, লায়ন ৫*; ওকস ৮-০-২০-৩, আর্চার ১০-০-৩২-২, স্টোকস ৪-০-২২-০, উড ৯-০-৪৫-১, প্লাঙ্কেট ৮-০-৪৪-০, রশিদ ১০-০-৫৪-৩)।

ইংল্যান্ড: ৩২.২ ওভারে ২২৬/২ (রয় ৮৫, বেয়ারস্টো ৩৪, রুট ৪৯*, মর্গ্যান ৪৫*; বেহরেনডর্ফ ৮.১-২-৩৮-০, স্টার্ক ৯-০-৭০-১, কামিন্স ৭-০-৩৪-১, লায়ন ৫-০-৪৯-০, স্মিথ ১-০-২১-০, স্টয়নিস ২-০-১৩-০)।

ফল: ইংল্যান্ড ৮ উইকেটে জয়ী

ম্যান অব দা ম্যাচ: ক্রিস ওকস

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত