শিরোনাম

২-৩ দিনের মধ্যেই আ.লীগের মনোনয়ন চূড়ান্ত হবে : কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক  |  ১৬:০২, নভেম্বর ১৬, ২০১৮

আগামী দুই-তিন দিনের মধ্যে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর তালিকা চূড়ান্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

শুক্রবার (১৬ নভেম্বর) আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা জানান তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, দুই-তিন দিনের মধ্যে মনোনয়ন চূড়ান্ত করা হবে। এক সপ্তাহের মধ্যে অ্যালায়েন্সের (জোট) সঙ্গে আসন ভাগাভাগীর কাজ শেষ হবে। জেতার সম্ভাবনা আছে এমন প্রার্থীকেই মনোনয়ন দেওয়া হবে। হারের রিস্ক আমরা নেব না।

কাদের বলেন, আমাদের নির্বাচনী প্রস্তুতি প্রায় শেষ। দেশি-বিদেশি সব সমীক্ষা ও জরিপে দেখা গেছে শেখ হাসিনা জনপ্রিয়তার তুঙ্গে অবস্থান করছেন।সব জরিপে আওয়ামী লীগ এগিয়ে আছে। আমি পাঁচ-ছয়টি জরিপ রিপোর্ট স্টাডি করেছি। আমাদের যারা প্রতিপক্ষ তাদের অবস্থান নিয়েও জরিপ করা হয়েছে। যেসব এলাকায় আমরা পিছিয়ে আছি, সেসব নির্বাচনী এলাকাতেও আমরা গেছি।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাদের বলেন, “বিএনপি বেপরোয়া হয়ে গেছে। আসলে জনসমর্থনের যে পারদ, তাতে তাদের অবস্থান নিচের দিকে। তারা অনুধাবন করতে পেরেছে, তারা হতাশা থেকে বেপরোয়া হয়ে গেছে এবং বেপরোয়া বক্তব্য দিচ্ছে।"

ভোট সামনে রেখে কামাল হোসেনের ঐক্যফ্রন্টে যোগ দেওয়া বিএনপি নেতারা নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে পক্ষপাতের অভিযোগ করে আসছেন।

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী শুক্রবারও এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, নির্বাচন কমিশন আওয়ামী লীগকে ‘বিশেষ সুবিধা’ দিচ্ছে। আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে সরকারি দলের লোকজন ‘অবাধে বিচরণ করছে’। ওই ভবন এখন ‘আওয়ামী লীগের অফিসে’ পরিণত হয়েছে।

বিএনপির সঙ্গে জোট বাঁধায় ঐক্যফ্রন্ট নেতাদের সমালোচনা করে কাদের বলেন, ‘সকল সাম্প্রদায়িক শক্তি’ এখন বিএনপির ধানের শীষে ভিড়েছে।
“যারা এতদিন গণতন্ত্রের বেশে ছিল, তারা ছদ্মবেশী। তারা এতদিন মুক্তিযুদ্ধের নানা বুলি ছড়িয়েছিল। মুক্তিযুদ্ধেও ছিল, তারা ছদ্মবেশী মুক্তিযোদ্ধা। নির্বাচনে জেতার জন্য, ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য তারা সাম্প্রদায়িক শক্তির সঙ্গে আঁতাত করতে থাকে। তাদের সবার পরিচয় সাম্প্রদায়িক অপশক্তি। এটার বিরুদ্ধেই আমাদের লড়াই।"

বিএনপি ইতোমধ্যে নির্বাচন কমিশনে চিঠি দিয়ে জানিয়েছেন, মোট ১১টি নিবন্ধিত দল তাদের ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবে।

এর মধ্যে ২০ দলীয় জোটের নিবন্ধিত দলগুলো হল- এলডিপি, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ, খেলাফত মজলিশ, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি-বিজেপি, জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি-জাগপা ও বাংলাদেশ মুসলিম লীগ। এছাড়া জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে থাকা গণফোরাম, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি ও কৃষক শ্রমিক জনতা লীগও জোটগতভাবে প্রতীক ‘ধানের শীষ’ প্রতীক ব্যবহারের কথা জানিয়েছে।

ভোট সামনে রেখে বিএনপি নেতাকর্মীদের গণগ্রেপ্তারের অভিযোগ অস্বীকার করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাদের বলেন, "আগুন দিয়ে পুলিশের গাড়ি পুড়িয়ে ফেলবে, ভাঙচুর করবে, ২০ জন পুলিশকে আহত করে হাসপাতালে পাঠাবে, এই অপকর্ম সন্ত্রাস, সহিংসতার কাজ কি বিনা শাস্তিতে ঢাকা পড়ে যাবে?”

নয়া পল্টনে দুদিন আগে পুলিশের সঙ্গে বিএনপিকর্মীদের সংঘর্ষের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, “তফসিল ঘোষণার পর এই দুঃসাহস তারা কীভাবে দেখায়? অপরাধ করলে কী অপরাধীর বিরুদ্ধে মামলা হওয়া অপরাধ? এটা ক্রিমিনাল অফেন্স, অ্যাক্ট অব টেররিজম। এ ধরনের অপরাধ বিনা শাস্তিতে যাবে না।"

কাদের বলেন, ‘বিএনপি বোমা-সন্ত্রাসের দল। দেশে নৈরাজ্য সৃষ্টি করে তারা শেখ হাসিনা সরকারকে উৎখাত করতে চায়।’ ‘বিএনপি জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত একটি সন্ত্রাসী দল।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত