শিরোনাম

তিন হাজার কোটি টাকার বাজার মূলধন ফিরে পেলো ডিএসই

প্রিন্ট সংস্করণ॥অর্থনৈতিক প্রতিবেদক  |  ০০:৪৯, আগস্ট ১৭, ২০১৮

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস গতকাল বৃহস্পতিবার দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) এবং অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) বড় উত্থান হয়েছে। এতে একদিনেই তিন হাজার কোটি টাকার ওপরে বাজার মূলধন ফিরে পেয়েছে ডিএসই। এদিন দুই বাজারেই সবকটি মূল্য সূচকের বড় উত্থান হয়েছে। সেইসঙ্গে বেড়েছে লেনদেন হওয়া সিংহভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম। লেনদেনও কিছুটা বেড়েছে দুই বাজারেই। দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইতে ২১২টি প্রতিষ্ঠানেরই শেয়ার ও ইউনিটের দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমার তালিকায় স্থান করে নিয়েছে ৯১টি। আর ৩৭টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ায় ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ৫৯ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ৪৬৭ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অপর দুটি মূল্য সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় ১৩ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৯১৫ পয়েন্টে অবস্থান করছে। আর ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক ৪ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ২৪৬ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ায় তিন হাজার কোটি টাকার ওপরে বাজার মূলধন ফিরে পেয়েছে ডিএসই। দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইর বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ৮৭ হাজার ৪২৪ কোটি টাকা। যা আগের কার্যদিবস শেষে ছিল ৩ লাখ ৮৪ হাজার ২১০ কোটি টাকা। বাজার মূলধন ও মূল্য সূচকের পাশাপাশি বাজারটিতে লেনদেনের পরিমাণও কিছুটা বেড়েছে। দিনভর ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৫৮০ কোটি ৭৬ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ৫৮০ কোটি ১৯ লাখ টাকা। সে হিসাবে লেনদেন বেড়েছে ৫৭ লাখ টাকা। টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সব বেশি লেনদেন হয়েছে বিবিএস কেবলসের শেয়ার। কোম্পানিটির ২৬ কোটি ৩১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইফাদ অটোসের ১৮ কোটি ১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ১৫ কোটি ৩০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে বসুন্ধরা পেপার। লেনদেনে এরপর রয়েছে লংকাবাংলা ফাইন্যান্স, অ্যাকটিভ ফাইন, ঢাকা ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক, শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজ, আমান কটন এবং স্কয়ার ফার্মা। অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্য সূচক সিএসসিএক্স ১৩৫ পয়েন্ট বেড়ে ১০ হাজার ১৮১ পয়েন্টে অবস্থান করছে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ২৫ কোটি ৬৮ লাখ টাকা। লেনদেন হওয়া ২৪০টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৪৩টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৭৮টির। আর দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ১৯টির।
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত