শিরোনাম
বিশ্বকাপের বাকি একশ দিন

পাকিস্তানের সাথে খেলার প্রয়োজন নেই : হরভজন

প্রিন্ট সংস্করণ॥স্পোর্টস ডেস্ক  |  ০৩:৫১, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০১৯

ঠিক এক’শ দিন পরই শুরু হতে যাচ্ছে ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস বিশ্বকাপ। ক্রিকেটের ৫০ ওভারের ফরম্যাটের দ্বাদশ আসরটি শুরু হবে আগামী ৩০ মে। দশ দেশের এ মহোরণ পর্দা নামবে লর্ডসে ১৪ জুলাই। ইংল্যান্ডে সবশেষ বিশ্বকাপের আসর বসেছিল ১৯৯৯ সালে। এবার সবমিলিয়ে ৪৮টি ম্যাচ আয়োজন হবে ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলসের ১১টি ভেন্যুতে। ৩০ মে ইংল্যান্ডের মাটিতে বসতে যাওয়া ওয়ানডে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে মাঠে নামবে স্বাগতিক ইংলিশরা, তাদের প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা। আর ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় এই আসরের পর্দা নামবে ১৪ জুলাই। আইসিসি বিশ্বকাপ ক্রিকেটে ভারত-পাকিস্তান লড়াই মানেই টানটান উত্তেজনা। দুই দেশের চির প্রতিদ্বন্দ্বিতা বাড়তি উদ্দীপনা সৃষ্টি করে এ ম্যাচকে ঘিরে। আর যদি ম্যাচটি হয় বিশ্বকাপের মতো বড় আসরের, তাহলে যেনো তা ছাড়িয়ে যায় যেকোনো ম্যাচকেই। ইংল্যান্ডের মাটিতে হতে যাওয়া আসন্ন বিশ্বকাপে তেমনই এক ম্যাচে মুখোমুখি হওয়ার কথা রয়েছে ভারত ও পাকিস্তানের। আগামী জুন মাসের ১৬ তারিখ ওল্ড ট্রাফোর্ডে রাউন্ড রবিন লিগের ম্যাচে মুখোমুখি হবে দুই দল। কিন্তু সম্প্রতি কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সন্ত্রাসী হামলার কারণে ভারতের সাধারণ ক্রিকেট ভক্ত-সমর্থকরা এরই মধ্যে আহ্বান জানিয়েছে বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচটি বাতিল করার। এবার তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন ভারতের ২০১১ সালের বিশ্বকাপজয়ী দলের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হরভজন সিং। ডানহাতি এ অফস্পিনার মনে করেন খেলাধুলার আগে আসে দেশ এবং যেহেতু পাকিস্তানের জঙ্গী সংগঠন ভারতে হামলা করেছে তাই তাদের সঙ্গে ক্রিকেটসহ সব ধরনের সম্পর্ক ছিন্ন করা উচিৎ ভারতের। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে হরভজন বলেন, ‘ক্রিকেট দূরে থাক, পাকিস্তানের সঙ্গে কোনো সম্পর্কই রাখার দরকার নেই। ১৬ জুন তারিখে পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচটি খেলার কোনো প্রয়োজন নেই। আমাদের জন্য সবকিছুর আগে আসে দেশ এবং আমরা আমাদের নিহত সেনা সদস্যদের পাশেই আছি। কিন্তু পাকিস্তানের সঙ্গে ম্যাচ না খেললে সেমিফাইনালে ওঠার সমীকরণ কঠিন হয়ে যাবে ভারতের জন্য। কেননা তখন তাদের লড়তে হবে ৮ ম্যাচ খেলে। জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটার হরভজন প্রস্তুত রেখেছেন এমন পরিস্থিতিরও সমাধান। তিনি মনে করেন পাকিস্তানের বিপক্ষে না খেললেও সেমিফাইনালে যাওয়ার মতো যথেষ্ঠ শক্তিশালী বিরাট কোহলির দল। হরভজন বলেন, দীর্ঘদিন ধরেই পাকিস্তান এমন সীমান্তে সন্ত্রাসকে উসকে দিচ্ছে এবং এবারের হামলাটা সত্যিই বেদনাদায়ক ছিল। পাকিস্তানের বিপক্ষে না খেললে যদি পয়েন্ট খোয়াতে হয় তাতেও সমস্যা নেই। কারণ আমি বিশ্বাস করি সে ম্যাচটি না খেললেও সেমিফাইনাল খেলার মতো শক্তি আছে ভারতের।

 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত