শিরোনাম

নিষিদ্ধ হলেন ক্রিকেটার হার্দিক-রাহুল

স্পোর্টস ডেস্ক  |  ১১:৫৪, জানুয়ারি ১২, ২০১৯

নারী নিয়ে অশালীন মন্তব্যের জেরে হার্দিক পান্ডিয়া ও লোকেশ রাহুলকে অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষিদ্ধ করলো ভারতীয় বোর্ড। শুধু তা-ই নয়, ভারত জুড়ে উঠে পড়া প্রবল বিতর্কের ঝড়ের মধ্যে দুই ক্রিকেটারকে অস্ট্রেলিয়া থেকে দেশেও ফিরিয়ে আনা হচ্ছে। ধারণা করা হচ্ছে, অস্ট্রেলিয়ার পরে নিউজিল্যান্ডে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজেও দলের বাইরে থাকতে পারেন এই দুই ক্রিকেটার।

এর আগে করন জোহরের ‘কফি উইথ করন’ নামে ভারতের জনপ্রিয় টেলিভিশন অনুষ্ঠানে নারীদের নিয়ে অশালীন মন্তব্য করায় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) তোপের মুখে পড়েন এ দুই ক্রিকেটার। অশালীন মন্তব্যের কারণে বিসিসিআইয়ের পক্ষ থেকে তাদের কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠানো হয়। অবশ্য এর আগেই সামাজিক যোগোযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড় ওঠায় ক্ষমা চেয়েছেন পান্ডিয়া।

অনুষ্ঠানে একাধিকবার নারীদের নিয়ে মন্তব্য করেন এই দুই তরুণ ক্রিকেটার। গেলো সপ্তাহে অনুষ্ঠানটি সম্প্রচার হওয়ার পর পরই সমালোচনার ঝড় ওঠে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও গণমাধ্যমে। বিসিসিআইও বিষয়টিকে শক্তভাবেই দেখছে। তাই অস্ট্রেলিয়া সফরে থাকা অবস্থাতেই এই দুই ক্রিকেটারের কাছে কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠায় বোর্ড।

ভারতের সুপ্রিম কোর্টের গড়ে দেওয়া বিসিসিআইয়ের কমিটি অব অ্যাডমিনিস্ট্রেটরসের (সিওএ) প্রধান বিনোদ রাই ভারতীয় সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে বলেন, ‘আমরা হার্দিক পান্ডিয়া ও লোকেশ রাহুলকে তাদের মন্তব্যের জন্য কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠিয়েছি। আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তাদের দেওয়া মন্তব্যের ব্যাখ্যা দিতে হবে।’

তবে ইতোমধ্যে ক্ষমা চেয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে পান্ডিয়া আগেই লেখেন ‘কফি উইথ করনে আমার মন্তব্যে কেউ আঘাত পেয়ে থাকলে, আমি প্রত্যেকের কাছে ক্ষমা চাইছি। সত্যি বলতে অনুষ্ঠানের সঙ্গে তাল মেলাতে গিয়ে এমনটা হয়েছে। কোনোভাবেই কাউকে অসম্মান কিংবা আঘাত করার ইচ্ছা আমার ছিল না।’

তবে পান্ডিয়া ক্ষমা চাইলেও লোকেশ রাহুল এখন পর্যন্ত কোনো মন্তব্য করেননি।

এদিকে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে মাঠে নামার আগে এই বিতর্ক নিয়ে কথা বলেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তিনি বলেন, আমরা প্রত্যেকেই দায়িত্বশীল ক্রিকেটার। ভারতীয় দল হিসাবে আমরা কোনো ভাবেই ওই দুই ক্রিকেটারের দৃষ্টিভঙ্গি ও মন্তব্যকে সমর্থন করি না। এটা স্পষ্ট করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে সংশ্লিষ্ট ক্রিকেটারদেরও। তবে এতে দলের ভেতরের বিশ্বাসে কোনোরকম প্রভাব ফেলবে না। দলের স্পিরিটও নষ্ট হবে না। টক শো’তে ওরা যা বলেছে, তা নিতান্তই ওদের ব্যক্তিগত অভিমত। যে কঠিন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে, তা থেকে ওরাও নিশ্চয়ই নিজেদের ভুল বুঝতে পেরেছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত