৩ অর্ধশতক

স্পোর্টস রিপোর্টার  |  ১৯:৪৮, জানুয়ারি ১৯, ২০১৮

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে যেখানে শেষ করেছিল বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে যেন ঠিক সেখান থেকেই হলো শুরু। প্রথম ওয়ানডেতে জিম্বাবুয়ে ১৭১ রানের বেশি লক্ষ্য দিতে পারেনি। তবে সেদিন যেভাবে খেলছিল বাংলাদেশ, তাতে তিনশ প্লাস রানও সহজেই পেরিয়ে যেত তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসানরা। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শুক্রবার নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে অবশ্য টস জিতে আগে ব্যাটিং নিলেন টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি বিন মোর্তুজা। আগে ব্যাট করে লঙ্কানদের বড় লক্ষ্যই দিল স্বাগতিকরা। বাংলাদেশ ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ৩২০ রান করে।

এদিন তিন তিনটি ফিফটি হয়েছে ইতোমধ্যে। তামিম ইকবাল সেঞ্চুরির আশা জাগিয়ে ৮৪ রান করে ফিরেছেন তামিম। সাকিব আল হাসান দারুণ খেলতে খেলতে আউট ৬৭ রানে। ৬২ রানের ফিফটি তুলে নিয়ে পঞ্চম ব্যাটসম্যান হয়ে ফিরেছেন মুশফিকুর রহীম। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে অপরাজিত ৮৪ রানের ইনিংস খেলেছিলেন তামিম। শুক্রবার ঠিক ৮৪ রানেই আউট হলেন এই ড্যাশিং ওপেনার। তবে আগের ম্যাচে ৩৭ রানে আউট হলেও ফিফটি তুলে নেন সাকিব আল হাসান। যদিও ইনিংসটাকে সেঞ্চুরির দিকে নিতে পারেননি তিনিও। লঙ্কান বোলারদের তৃতীয় শিকার হয়েছেন সাকিব।

ওপেনিংয়ে এনামুল হক বিজয়কে নিয়ে ৭১ রানের জুটি গড়েন তামিম। দুইবার জীবন পেয়েও বিজয় ৩৫ রান করে ফিরেন। আগের ম্যাচে ১৯ রান করে ফিরেছিলেন বিজয়। তামিম ১০২ বলে ৭ চার ও ২ ছক্কায় ৮৪ রান করে আউট হন। আকিলা ধনাঞ্জয়ার বলে নিরোশান ডিকভেলার হাতে ক্যাচ হন তামিম। বিজয়কে ফিরিয়েছেন থিসারা পেরেরা।

সাকিব ও মুশফিকুর রহীমের তৃতীয় উইকেট জুটি হয়েছে ৫৭ রানের। গুনারত্নের করা ৩৮তম ওভারে সাকিব আউট হয়েছেন নিজস্ব ঢঙেই। উচ্চাভিলাসি শট খেলতে চেয়েছিলেন। কিন্তু ফিরেছেন কট অ্যান্ড বোল্ড হয়ে। থিসারা পেরেরার বলে মুশফিক বোল্ড হয়ে ফিরেন। ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে ৮ উইকেটে হারায় বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে ১২ রানে হারায় জিম্বাবুয়ে।