শিরোনাম

বাংলাদেশের কোচ হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে হেসন

প্রিন্ট সংস্করণ॥ক্রীড়া প্রতিবেদক  |  ০১:৫৮, আগস্ট ০৯, ২০১৯

জাতীয় দলের নতুন হেড কোচ নিয়োগে সংক্ষিপ্ত তালিকা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

পাঁচজনের এ সংক্ষিপ্ত তালিকায় কোচ হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে নিউজিল্যান্ডের মাইক হেসন ঘরের মাঠে টেস্টে আফগানিস্তানের মুখোমুখি হতে আর এক মাসেরও কম সময় বাকি।

তার আগেই জাতীয় দলে নতুন হেড কোচ নিয়োগের চেষ্টা করছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। ক্রিকইনফো জানিয়েছে, কোচ বাছাই করতে পাঁচজনকে নিয়ে বিসিবি একটি সংক্ষিপ্ত তালিকা করেছে।

সেই পাঁচ কোচ হলেন- নিউজিল্যান্ডের মাইক হেসন, জিম্বাবুয়ের গ্রান্ট ফ্লাওয়ার, ইংল্যান্ডের পল ফারব্রেস, দক্ষিণ আফ্রিকার রাসেল ডমিঙ্গো ও শ্রীলঙ্কার চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। এদের মধ্যে ডমিঙ্গো ঢাকায় এসে বিসিবির সঙ্গে কথা বলে গেছেন।

ইংল্যান্ডের সাবেক কোচ অ্যান্ডি ফ্লাওয়ারকে কোচ বানাতে আগ্রহী ছিল বিসিবি। কিন্তু দুই দফায় প্রস্তাব দেয়ার পরও তিনি নাকচ করে দেয়ায় এ সংক্ষিপ্ত তালিকা করেছে বোর্ড।

উপমহাদেশের অন্য দলগুলোও নতুন কোচ খুঁজছে। মিকি আর্থারের সঙ্গে পাকিস্তান যেমন চুক্তি নবায়ন করেনি, তেমনি হাথুরুসিংহের সঙ্গেও চুক্তি বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে শ্রীলঙ্কা।

এদিকে নতুন কোচ খুঁজছে ভারতও। আর আফগানিস্তানের কোচ পদও খালি পড়ে আছে। এ কয়টি দলের সঙ্গে রীতিমতো পাল্লা দিয়েই নতুন কোচ নিয়োগ দিতে হবে বিসিবিকে।

সংক্ষিপ্ত তালিকায় জায়গা পাওয়া এ পাঁচ কোচের মধ্যে মাইক হেসন বাকিদের চেয়ে এগিয়ে। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান এবং বোর্ডের কয়েকজন পরিচালক তার প্রতি আগ্রহী।

নিউজিল্যান্ডের সাবেক এ কোচ আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বেশ খ্যাতি কুড়িয়েছেন। ২০১২ থেকে গত বছর পর্যন্ত নিউজিল্যান্ড দলের দায়িত্ব সামলেছেন হেসন। গ্রান্ট ফ্লাওয়ার ২০১৪ সালে পাকিস্তান দলের ব্যাটিং কোচের দায়িত্ব নিয়ে ভালোই সামলাচ্ছিলেন।

বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বাজে পারফরম্যান্সের পর তাকে বরখাস্ত করেছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। হাথুরুসিংহে ২০১৪ থেকে ২০১৭ পর্যন্ত বাংলাদেশ দলের হেড কোচের দায়িত্ব সামলেছেন। সাকিব-মাশরাফিদের দায়িত্ব ছেড়ে ২০১৭ সালের অক্টোবরে তিনি শ্রীলঙ্কার দায়িত্ব নেন।

এর আগে জানা গিয়েছিল, বিসিবি সভাপতি ও কয়েকজন পরিচালক হাথুরুসিংহেকে কোচ পদে ফেরাতে আগ্রহী। কিন্তু শ্রীলঙ্কান বোর্ডের সঙ্গে হাথুরুসিংহের চলমান সমস্যায় তাকে ফেরানোর ব্যাপারে দ্বিধায় ভুগছেন বিসিবি পরিচালকেরা।

কিছুদিন আগে শ্রীলঙ্কার সংবাদমাধ্যম জানিয়েছিল, হাথুরুসিংহের সঙ্গে চুক্তি বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। এরপর জানা গেছে তাকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। এ ছাড়া শ্রীলঙ্কা দলের দু-একজন খেলোয়াড়দের সঙ্গে বিরোধ রয়েছে হাথুরুসিংহের।

আর দেশটির ক্রীড়ামন্ত্রী হারিন ফার্নান্দোও লঙ্কান এ কোচের ব্যাপারে অনাগ্রহী। ইংল্যান্ডের সাবেক সহকারী কোচ পল ফারব্রেসকে নিয়েও ভাবছে বিসিবি; যদিও গত বছরের মার্চে তিনি বিসিবির প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন।

সে সময় হাথুরুসিংহের বদলি খুঁজছিল বোর্ড। যার পরিপ্রেক্ষিতে স্টিভ রোডসকে কোচ করে এনেছিল বিসিবি।

বিশ্বকাপের পর তার সঙ্গে পথচলায় ইতি ঘটিয়ে এখন নতুন কোচ খুঁজছে বিসিবি। গত বুধবার ডমিঙ্গোর সাক্ষাৎকার নিয়েছে বিসিবি। দক্ষিণ আফ্রিকান এ কোচের উপস্থাপনা বা প্রেজেন্টেশনে সন্তুষ্ট হয়েছে বোর্ড।

বিসিবি মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, ‘সংক্ষিপ্ত তালিকার কোচদের নিয়ে কাজ শুরু করেছি আমরা। আপাতত রাসেল ডমিঙ্গোর সাক্ষাৎকার নেয়া হলো।

সে ভীষণ পেশাদার ও যোগ্যতাসম্পন্ন। বাংলাদেশ ক্রিকেট নিয়ে নিজের ভাবনাগুলো সে আমাদের কাছে উপস্থাপন করেছে। বিসিবি তাতে সন্তুষ্ট।

সংক্ষিপ্ত তালিকায় বাকি কোচদের সাক্ষাৎকারও নেয়া হবে। আগামী কিছুদিনের মধ্যে আরও দুজনের সাক্ষাৎকার নেয়া হবে। এরপর তাদের মধ্য থেকে আমরা পছন্দ করব।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত