শিরোনাম

ডাবলিনে রাহীর বোলিং তাণ্ডব

প্রিন্ট সংস্করণ॥ক্রীড়া প্রতিবেদক  |  ০২:৪৭, মে ১৬, ২০১৯

আবু জায়েদ রাহীকে নিয়ে অনেক কথাই হয়েছে গত কদিনে। গতকাল ৫ উইকেট নিয়ে সব প্রশ্নের উত্তর দিয়ে দিলেন ২৫ বছর বয়সী এই পেসার। বিশ্বকাপ দলের বড় চমক হিসেবেই তাঁকে দলে অন্তর্ভুক্ত করেছিলেন নির্বাচকরা। কোনো ওয়ানডে না খেলা আবু জায়েদও বড় স্বপ্ন নিয়েই আয়ারল্যান্ডে উড়াল দিয়েছিলেন তিনি।

কিন্তু কদিন না যেতেই ডাবলিন থেকে ছড়াল বিভিন্ন গুঞ্জন। আবু জায়েদ পুরোপুরি ফিট নন, অনুশীলনে তিনি বড় জোর একজন নেট বোলার! এমনকি বিশ্বকাপ দলেও তিনি থাকেন কি না, সেটি নিয়ে আছে ঘোর সংশয়। আবু জায়েদ দেখিয়ে দিলেন নির্বাচকেরা কেন তাঁকে নিয়েছেন।

অভিষেকটা তাঁর ভালো হয়নি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৯ ওভারে ৫৪ রান দিয়ে ছিলেন উইকেটশূন্য। ইনিংস শেষে বের হচ্ছিলেন খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে। পরে অবশ্য জানা গেল, শেষ দিকে বল পায়ে লেগেছিল, গুরুতর কিছু নয়।

গতকাল পুরোপুরি ফিট জায়েদকেই দেখা গেল। দেখা গেল দুর্দান্ত জায়েদকেও। যদিও শুরুটা খুব বেশি ভালো হয়নি। ৫ ওভারে ২৮ রানে ছিলেন উইকেটশূন্য। সাফল্য পেলেন প্রথম স্পেলের প্রায় শেষ দিকে এসে, নিজের ষষ্ঠ ওভারে অ্যান্ডি বলবার্নিকে (২০) ফিরিয়ে।

দুর্দান্ত জায়েদের দেখা পাওয়া গেল স্লগ ওভারে। ৪৫তম ওভারে আউট করলেন সেঞ্চুরির পথে এগোতে থাকা উইলিয়াম পোর্টারফিল্ডকে (৯৪)। ৪৭তম ওভারে ফেরালেন ১৩০ রান করা পল স্টার্লিং আর কেভিন ও’ব্রায়েনকে (৩)। ৪৯তম ওভারে প্রথম ৩ বলে ১০ রান দিলেও চতুর্থ বলে গ্যারি উইলসনকে তুলে নিয়ে ৫ উইকেট পূর্ণ করলেন আবু জায়েদ।

২০১৫ সালের নভেম্বরের পর এই প্রথম ওয়ানডেতে বাংলাদেশের কোনো বোলার ৫ উইকেট পেলেন। সবশেষ পেয়েছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। দেশের বাইরে হিসাব করলে সময়টা অর্ধযুগ। সবশেষ বিদেশের মাঠে ৫ উইকেট পেয়েছেন জিয়াউর রহমান, বুলাওয়েতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে, ২০১৩ সালের মে মাসে।

প্রথম ৬ ওভারে ৩৫ রান দেওয়া জায়েদ পরের ৩ ওভারে দিয়েছেন ২৩ রান। আগেই বলা হয়েছে, পাঁচ উইকেটের চারটিই এই স্পেলে। ৬.৪৪ ইকোনমি একটু ব্যয়বহুল হলেও জায়েদের বড় কৃতিত্ব এ ম্যাচে বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল বোলার তিনিই। ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ওয়ানডেতেই পেলেন ৫ উইকেট, সেটিও বিদেশের মাটিতে। দেশের বাইরে বাংলাদেশের বোলারদের এমন সাফল্য যে কমই দেখা যায়।

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ, তাঁকে নিয়ে যে সংশয়, সেটি জায়েদ দূর করে দিয়েছেন ভালোভাবে। তবে কদিন ধরে যে সব কথা হচ্ছিল, ভীষণ ধাক্কাই খেয়েছেন ২৫ বছর বয়সী পেসার। ধাক্কা খাওয়া খুব স্বাভাবিকও। নিমন্ত্রণ করে ডেকে এনে ঘর থেকে বের করে দেওয়ার কথা উঠলে কার ভালো লাগে? সবকিছুর জবাব কী দুর্দান্তভাবেই না দিলেন আবু জায়েদ। ৫ উইকেট পেয়ে একটু যেন প্রাণখুলে হাসলেন। আর জানিয়ে দিলেন, আপাতত তাঁকে নিয়ে আর কথা নয়!

 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত