শিরোনাম

সুপার ওভার: মিলার জাদুতে জয় পেল দক্ষিণ আফ্রিকা

স্পোর্টস ডেস্ক  |  ১১:৪১, মার্চ ২১, ২০১৯

শেষ ৪ ওভারে মাত্র ১৮ রান দরকার ছিল দক্ষিণ আফ্রিকার। কিন্তু প্রোটিয়া ব্যাটসম্যানদের যেন ড্রেসিং রুমে ফেরার তাড়ায় পেয়ে বসে। কপাল ভালো ম্যাচটা শেষ পর্যন্ত সুপার ওভারে গড়ায়। আর তাতে বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ডেভিড মিলারের ব্যাটে ভর করে লঙ্কানদের স্বপ্নভঙ্গ করে জয় তুলে নেয় স্বাগতিকরা।

১৯ মার্চ (মঙ্গলবার) রাতে শ্রীলঙ্কার ছুড়ে দেওয়া ১৩৫ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমেও ২৩ বলে ৪১ রান করে দলকে পথ দেখিয়েছিলেন মিলার। কিন্তু হুট করেই পথ হারিয়ে বসে দল। লাসিথ মালিঙ্গার অসাধারণ বোলিং আর ইশুরু উদানার করা ইনিংসের শেষ ওভার ম্যাচকে টাইয়ে পরিণত করে। শেষে ফল পেতে সুপার ওভারে গড়ায় ম্যাচ।

সুপার ওভারে মালিঙ্গা জাদু অকেজো করে ভ্যান ডার ডুসানকে নিয়ে ১৪ রান তুলেন মিলার। জবাবে থিসারা পেরেরা আর অভিষেক টি-টোয়েন্টি খেলতে নামা আভিশকা ফার্নান্দো মিলে ইমরান তাহিরের করা ওভার থেকে নিতে পারেন মাত্র ৫ রান।

জবাব দিতে নেমে লঙ্কানদের স্পিনে কাবু হতে থাকেন একের পর এক প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান। রিজা হ্যানড্রিকস রান আউটের শিকার হওয়ার আগে ধনঞ্জয়া ডি সলভা, আকিলা ধনঞ্জয়া এবং জেফরি ভ্যানডের্সে রানের চাকা আটকে রাখেন। তবে ভ্যান ডার ডুসানের সঙ্গে ৬৬ রানের জুটি গড়ে দলকে পথে ফেরান মিলার। দলের যখন রানের অতি প্রয়োজন সেসময় উদানার করা ১৫তম ওভারে তার ব্যাট থেকে আসে ২০ রান।

মিলার প্রায় একাই ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিয়েছিলেন, কিন্তু লঙ্কান ফাস্ট বোলার মালিঙ্গা তাতে বাধ সাধলেন। ১৭তম ওভার করতে এসে ডুসানকে তুলে নিলেন, তার আগে ২ রান নিতে গিয়ে রান আউটের খাড়ায় কাটা পড়েন মিলার। এরপর কয়েকটা বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ম্যাচে উত্তেজনা ফিরিয়ে আনেন ফেহলুকাইয়ো। কিন্তু ডি সিলভার বলে তার বিদায়ের পর কাগিসো রাবাদাকে তুলে নেন মালিঙ্গা।

নিজের শেষ ওভারে মাত্র ১ রান খরচ করে ১ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সুপার ওভারে নিয়ে যান লঙ্কান অধিনায়ক। এরপর শেষ ওভারে উদানা এসে স্লোয়ারে ব্যাটসম্যানদের পর্যুদস্ত করে ছাড়েন। শেষ বলে দরকার ছিল ২, ইমরান তাহিরের ব্যাটের কানায় লেগে বল চলে যায় স্ট্যাম্পের পেছনে নিরোশান ডিকভেলার দিকে। বল কুড়িয়ে স্ট্যাম্প ভাঙার চেষ্টা করেন লঙ্কান উইকেটরক্ষক, কিন্তু দুই হাতেই গ্ল্যাভস থাকায় মিস করেন। এরপর সুপার ওভারে গড়ায় ম্যাচ।

এর আগে কামিন্ডু ম্যান্ডিসের ২৯ বলে ৪১ রানের ইনিংসে চড়ে ২০ ওভারে ১৩৪ রান সংগ্রহ করেছিল শ্রীলঙ্কা। ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই ডিকভেলার উইকেট তুলে নেন প্রোটিয়া ফাস্ট বোলার ডেল স্টেইন। লঙ্কান ব্যাটসম্যানদের মধ্যে আর কেউই দাঁড়াতে পারেননি। প্রোটিয়া বোলারদের মধ্যে তাহির ছিলেন সবচেয়ে নিয়ন্ত্রিত আর উইকেট নেওয়ায় এগিয়ে ছিলেন ফেহলুকাইয়ো। চার ওভার বল করে ২৫ রান খরচে ফেহলুকাইয়ো ঝুলিতে পুরেছেন ৩ উইকেট।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত