শিরোনাম

প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাতের অপেক্ষায় কয়েকজন মনোনয়নপ্রত্যাশী

প্রিন্ট সংস্করণ॥ নূরে আলম জীবন  |  ০১:৪১, অক্টোবর ০৫, ২০১৭

আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মাঠে প্রচারণার পাশাপাশি ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাক্ষাতের অপেক্ষায় বেশ কয়েকজন আওয়ামী লীগ নেতা, অভিনেতা-অভিনেত্রী, খেলোয়াড়, সমাজসেবকসহ অনেকেই। প্রধানমন্ত্রী দেশে এলে তার সঙ্গে দেখা করে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এমপি পদে মনোনয়ন চাইবেন। তবে কেন্দ্রীয় নেতাদের অনেকেই বলছেন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে মনোনয়ন চাইলেই পাওয়া যাবে বিষয়টি তা নয়। চূড়ান্ত মনোনয়ন দেবে মনোনয়ন বোর্ড।

মনোনয়নের আশায় বেশ কয়েকজন নেতা ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার জন্য ব্যাপক লবিয়িং শুরু করেছেন। তাদেরই একজন ব্যারিস্টার জাকির আহমেদ। ব্রাহ্মণবাড়ীয়া-৫ (নবীনগরের) আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী ব্যারিস্টার জাকির আহমেদ দৈনিক আমার সংবাদকে বলেন, বিশ্ব মানবতার নেত্রী, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিতে আগামী নির্বাচনে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে হবে এবং দলীয় মনোনয়নের ক্ষেত্রে প্রিয়নেত্রী মাঠের জনপ্রিয়তা বিবেচনা করেই মনোনয়ন দেবেন বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস।

বড় পর্দার খ্যাতিমান নায়ক ফারুক আগামী নির্বাচনে ক্ষতাসীন দলের মনোনয়ন নিয়ে গাজীপুর-৪ আসন থেকে জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে চান বলে জানা গেছে। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সবুজ সংকেতের অপেক্ষায় আছেন বলে জানা গেছে। নায়ক ফারুক দৈনিক আমার সংবাদকে বলেন, আমি আওয়ামী লীগকে ভালবাসি, অনেক বার আমি নির্বাচনের সবুজ সংকেত পেয়েছিলাম, আমি নির্বাচন করতে আগ্রহী ছিলাম না। তবে এখন নির্বাচন না করলে আর কখন! তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাকে মনোনয়ন দেবেন বলে আমি আশাবাদী।

এদিকে ছোট পর্দার নাটকের পরিচিত মুখ সিদ্দিক টাঙ্গাইল-১ আসন থেকে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়ে রাজনীতির মাঠে প্রচারণায় নেমেছেন। অভিনয়ের ইমেজকে রাজনীতিতে কাজে লাগিয়ে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে শেখ হাসিনার দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা করছেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরলেই সাক্ষাৎ করতে চান তিনি।

একইভাবে প্রধানমন্ত্রীর অপেক্ষায় আছেন হবিগঞ্জ-২ আসনের একজন এমপি পদে মনোনয়নপ্রত্যাশী। কুমিল্লা-৮ আসন থেকে এবার মনোনয়ন দৌড়ে এগিয়ে রয়েছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া। তিনিও প্রধানমন্ত্রীর সবুজসংকেতের অপেক্ষার প্রহর গুনছেন। তার নির্বাচনি এলাকায় ব্যাপক প্রচারণাসহ উন্নয়নমূলক কাজ করেছেন এই যুবনেতা।

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশবিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন দৈনিক আমার সংবাদকে বলেন, দলের মনোনয়ন পেতে সম্ভাব্য নেতারা কাজ করছেন। মাঠের অবস্থান দেখে আগামীতে মনোনয়ন পাবেন নেতারা। শুধু কাগজে কলমে গ্রহণযোগ্য হলে হবে না মন্তব্য করে তিনি বলেন, ভোটের রাজনীতিতে যারা এগিয়ে থাকবেন দল তাদের বিষয়েই সিদ্ধান্ত নেবে। আওয়ামী লীগের মনোনয়নের বিষয়ে দেলোয়ার হোসেন বলেন, আমাদের দলের মনোনয়নের ক্ষেত্রে একটি বোর্ড গঠন করা হয়। সম্ভাব্য সকলের সামনেই গ্রহণযোগ্য ব্যক্তিদেরই মনোনয়ন দেওয়া হয়।

প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ পাওয়ার আশায় নেতারা- এ বিষয়ে তিনি বলেন, যারা আগামী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে আগ্রহী তারা নিজের নির্বাচনি এলাকায় ইতোমধ্যে কাজ শুরু করেছেন। এখনও নির্বাচনের অনেক সময় বাকি রয়েছে জানিয়ে দেলোয়ার হোসেন বলেন, এ বিষয়ে এ মুহূর্তে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ পাওয়া সম্ভব নয় বলে মনে হচ্ছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত