বাংলাদেশে এসেছে দেয়াল প্লাস্টারে সহায়ক যন্ত্র

অনলাইন ডেস্ক | ০০:৫২, জানুয়ারি ১১, ২০১৭

পাকা ঘরের দেয়াল প্লাস্টারে সহায়ক যন্ত্র এনেছে ‘নানজিবা স্টিল স্ট্রাকচার সল্যুশন’ নামের একটি প্রতিষ্ঠান।

এই যন্ত্রের সহায়তায় শ্রমিকরা তুলনামূলক কম সময়ে বেশি কাজ করে বাড়তি অর্থ আয় করতে পারেন বলে প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার আবু তাহের মো. জুবায়ের জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, সাধারণত একজন শ্রমিক দৈনিক আট থেকে নয় ঘণ্টা কাজ করে সর্বোচ্চ দেড়শ বর্গফুট দেয়ালে প্লাস্টার বা প্রলেপ দিতে পারেন, বিনিময়ে মজুরি পান ৬০০ থেকে ৭০০ টাকা। অপরদিকে তাদের আমদানি করা ‘ওয়াল রেন্ডারিং’, ‘সিমেন্ট মর্টার স্প্রে’ ও ‘ওয়েট ওয়াল লেবেলিং’ মেশিনের সাহায্যে ৮ ঘণ্টায় ৮ থেকে ১০ হাজার বর্গফুট দেয়ালে প্লাস্টার বা সিমেন্টের প্রলেপ দেওয়া যায়।

চীন ও ইউরোপের বাজার থেকে এসব যন্ত্র আমদানি করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

জুবায়ের বলেন, ১৫ জন প্রশিক্ষিত শ্রমিকের সাহায্যে বিভিন্ন জায়গায় এই যন্ত্র ব্যবহার করে কাজ করা হয়েছে। এর সাহায্যে প্লাস্টারে প্রতি বর্গফুট দেয়ালের জন্য ৬ টাকা করে খরচ পড়ছে।

নানজিবা গ্রুপের মহাব্যবস্থাপক তারেক মঞ্জুয়ার জানান, সাধারণ শ্রমিকদের মাঝে ৩০০ ‘সিমেন্ট মর্টার স্প্রে’ বিতরণ করছেন তারা। সেক্ষত্রে আয়ের একটা অংশ কোম্পানি এবং একাংশ মেশিন ব্যবহারকারী শ্রমিক পাচ্ছেন।

 

 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
close-icon