শিরোনাম

মগবাজার-মালিবাগ ফ্লাইওভার খুলছে বৃহস্পতিবার

প্রিন্ট সংস্করণ॥ নিজস্ব প্রতিবেদক  |  ০২:০৪, অক্টোবর ২৪, ২০১৭

শেষ পর্যন্ত আগামী বৃহস্পতিবার খুলছে রাজধানীবাসীর বহুল আকাক্সিক্ষত মগবাজার-মৌচাক-মালিবাগ সমন্বিত ফ্লাইওভার। নির্মাণকাজ শেষ হওয়ার পর কয়েক দফা উদ্বোধনের ঘোষণা দিলেও তা সম্ভব না হওয়ায় অনেকটা হতাশ হয়ে পড়েছিলেন ফ্লাইওভারসংশ্লিষ্ট এলাকার বাসিন্দারা। অবশেষে ঘটতে যাচ্ছে তাদের এ হতাশার সমাপ্তি। এ দিন দুপুর ১২টায় গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ ফ্লাইওভারের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফলে দীর্ঘ ৬ বছরের অপেক্ষা-দুর্ভোগের অবসান ঘটিয়ে যান চলাচলের জন্য পুরোপুরি খুলে যাচ্ছে তিন ভাগে নির্মিত ফ্লাইওভারটি। সূত্র জানায়, এ বছর কয়েক দফায় ফ্লাইওভার উদ্বোধনের ঘোষণা দেওয়া হলেও যথাসময়ে কাজ শেষ না হওয়ায় তা সম্ভব হয়নি।
সর্বশেষ চলতি বছর সেপ্টেম্বর মাসের শেষের দিকে উদ্বোধনের কথাছিল এ ফ্লাইওভার। কিন্তু জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের (ইউএনজিএ) ৭২তম অধিবেশনে যোগদানের জন্য ১৭ সেপ্টেম্বর থেকে ৭ অক্টোবর পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী দেশের বাইরে ছিলেন। ফলে সে সময়ও উদ্বোধন সম্ভব হয়নি বলে জানা গেছে। তবে এ যাত্রায় আর আশাহতের কোনো সম্ভাবনা নেই বলে জানালেন ৮ দশমিক ২৫ কিলোমিটারের এ ফ্লাইওভারের প্রকল্প পরিচালক সুশান্ত কুমার পাল। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী আগামী ২৬ অক্টোবর দুপুর ১২টায় গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ ফ্লাইওভারের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করার সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন। ফলে এ দিনই খুলে যাবে এ ফ্লাইওভার।
এদিকে রাজধানীর সাতরাস্তা, এফডিসি, মগবাজার, মগবাজার রেলক্রসিং, মৌচাক, শান্তিনগর, মালিবাগ এলাকায় আগে থেকেই লেগে থাকা যানজট ফ্লাইওভার নির্মাণকাজের কারণে দুর্বিষহ হয়ে ওঠে। সংশ্লিষ্ট এলাকাগুলোর রাস্তায় বৃষ্টির দিনে কাদা-পানি আর রোদের দিনে ধুলায় অতিষ্ঠ হয়ে ওঠেন মানুষ। রিকশা-ভ্যানগাড়ি-সিএনজির মতো ছোট ছোট যানবাহন উল্টে যাওয়ার ঘটনাও ছিল নিত্য নৈমিত্তিক। নারী-শিশু ও স্কুলগামী শিক্ষার্থীসহ বহু মানুষ এ পথে দুর্ঘটনার শিকার হয়েছেন, আহত হয়েছেন। রাজধানীর মগবাজার-মৌচাক-মালিবাগ-শান্তিনগর ও তেজগাঁওয়ের যানজট নিরসন ও অবাধ যান চলাচল নিশ্চিত করতে ২০১১ সালে মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভার প্রকল্পটি গ্রহণ করে সরকার। পরে ২০১৩ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভারের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেছিলেন। এর পরে ধাপে ধাপে নকশা পরিবর্তন ও নির্মাণ ব্যয় বাড়তে থাকে এ প্রকল্পের। প্রথমে ২০১৪ সালের মধ্যে এ ফ্লাইওভারের কাজ শেষ হওয়ার কথা থাকলেও বিভিন্ন জটিলতায় ধাপে ধাপে মেয়াদও বাড়তে থাকে প্রকল্পের। এখন সবশেষে সম্পূর্ণরূপে আগামী বৃহস্পতিবার উদ্বোধন হতে যাচ্ছে এ ফ্লাইওভার।
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত