শিরোনাম

বন্যানিয়ন্ত্রণ বাঁধ ভেঙে শতাধিক গ্রাম প্লাবিত

প্রিন্ট সংস্করণ॥ বরগুনা প্রতিনিধি  |  ০২:১৮, অক্টোবর ২২, ২০১৭

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপ এবং জোয়ারের প্রভাবে পায়রা নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় বরগুনার বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ভেঙে শতাধিক গ্রাম প্লাবিত হয়েছ। পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন প্রায় ২৫ হাজার মানুষ। অন্যদিকে টানা বৃষ্টিতে এলাকার স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যাহত হচ্ছে। এছাড়া, জোয়ারের পানির চাপে প্লাবিত হয়েছে বরগুনার শহরও। পানির তোড়ে আরপাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের বালিয়াতলী গ্রামের বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের ৫০ মিটার ভেঙে পানি প্রবেশ করে বালিয়াতলী, পশুরবুনিয়া ও গোফখালী গ্রাম প্লাবিত হয়। এছাড়া তেতুলবাড়িয়া গ্রামের ১শত মিটার বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ভেঙে নদীর পানি ঢুকে তেতুলবাড়িয়া, নলবুনিয়া, আগাপাড়া, মরানিন্দ্রা, সুবাহানপাড়া, মেনিপাড়া ও খোট্টার চর প্লাবিত হয়। পায়রা নদীতে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় আমতলী ও পুরাকাটা ফেরিঘাটের গ্যাংওয়ে তলিয়ে যাওয়ায় যাত্রীদের চলাচলে ভোগান্তি চরমে। পানি ঢুকে এ সকল গ্রামের প্রায় ২৫ হাজার মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। একই সঙ্গে তলিয়ে গেছে ঘের ও পুকুর। বরগুনার পানি উন্নয়ন বোর্ডের গেজরিডার মো. মাহাতাব হোসেন জানান, শুক্রবার বরগুনার প্রধান তিনটি নদীতে জোয়ারের উচ্চতা ছিল ৩ দশমিক ২৬ মিটার যা বিপদসীমার ৪১ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে। এ বিষয়ে বরগুনা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মশিউর রহমান জানান, বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নের বরগুনায় উঁচু বেড়িবাঁধ নির্মাণের কাজ চলমান রয়েছে। দ্রুতই এই প্রকল্পের মাধ্যমে ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধ নির্মাণ করা হবে। 
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত