শিরোনাম

কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপকারী কনস্টেবল চিহ্নিত

নিজস্ব প্রতিবেদক  |  ১৬:৪০, আগস্ট ২৩, ২০১৭

পুলিশের দাঙ্গা দমন বিভাগের (পাবলিক অর্ডার ম্যানেজমেন্ট-পিওএম) কনস্টেবল সাইফুল ইসলামের ছোড়া কাঁদানে গ্যাসের শেল সিদ্দিকুর রহমানের চোখে লাগে। এ ছাড়া পরিস্থিত নিয়ন্ত্রণে থানা-পুলিশের একাধিক সদস্যেরও অবহেলা ছিল। পুলিশের রমনা বিভাগের তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে। প্রতিবেদনে কাঁদানে গ্যাসের শেল ছোঁড়ার জন্য কনস্টেবল সাইফুল ইসলামকে অভিযুক্ত করা হয়। আর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অবহেলাকারী পুলিশ সদস্যদের চিহ্নিত করে সতর্ক করার সুপারিশ করেছে কমিটি।

উল্লেখ্য, গত ২০ জুলাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সাত সরকারি কলেজের শিক্ষার্থীরা রুটিনসহ পরীক্ষার তারিখ ঘোষণার দাবিতে শাহবাগে আন্দোলন করছিলেন। আন্দোলনের সময় পুলিশের টিয়ার শেলে সিদ্দিকুর রহমান চোখে আঘাত পান। প্রথমে সিদ্দিকুরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে চক্ষুবিজ্ঞান ইন্সটিটিউটে স্থানান্তর করা হয়। সেখান থেকে ২৭ জুলাই তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চেন্নাইয়ে পাঠানো হয়। পরে গত ১১ আগস্ট চিকিৎসার শেষে অন্ধত্ব নিয়েই দেশে ফেরেন সিদ্দিকুর।

সিদ্দিকুর আহত হওয়ার পর আন্দোলনকারীরা জানিয়েছিলেন, পুলিশের টিয়ার শেলের আঘাতেই সিদ্দিকুরের দুই চোখে জখম হয়। তখন পুলিশ জানায়, শিক্ষার্থীদের ছোড়া ফুলের টবের আঘাতে সিদ্দিকুর আঘাতপ্রাপ্ত হন। পাশাপাশি পুলিশ ১২০০ শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে মামলাও দায়ের করে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত