শিরোনাম

৭শ’ টাকার চামড়া ২শ’ টাকা, ব্যবসায়ীর মাথায় হাত!

কুমিল্লা প্রতিনিধি  |  ১৫:০৮, আগস্ট ১৪, ২০১৯

ন্যায্যমূল্য না পাওয়ায় কুমিল্লা গোমতী নদীতে কোরবানির পশুর চামড়া ফেলে দিয়েছে স্থানীয় খুচরা ক্রেতারা।

এছাড়াও অনেক স্থানে কোরবানির পশুর চামড়া মাটিতে পুঁতে ফেলা হয়েছে। সারা দেশের মতো কুমিল্লায়ও চামড়া বাজারে ধস নেমেছে।

কুমিল্লার সবচেয়ে বড় চামড়া বাজার নগরীর ঋষি পট্টিতে কমে গেছে বেচাকেনা।

প্রতিবছরের মতো পাড়ামহল্লার মৌসুমী চামড়া ব্যবসায়ীদের মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ার মতো অবস্থা।

এমনকি পাড়ামহল্লা থেকে চামড়া সংগ্রহ করে বিক্রি করতে পারেননি অনেকেই। দাম নেই কোথাও।

মৌসুমী চামড়া ব্যবসায়ী রশিদ ১২টি চামড়া সংগ্রহ করেন বেলা ২টার দিকে, এরপর কুমিল্লা ঋষিপট্টিতে বিক্রি করতে যান তিনি। পরে দাম শুনে চমকে যান মাথায় হাত দেন ওই ব্যবসায়ী। সর্বোচ্চ ৭শত টাকায় চামড়া ক্রয় করেন যা ২ থেকে আড়াইশ টাকার বেশি দাম উঠছে না। একই অবস্থার কথা জানান খুচরা ক্রেতা হাসান। ৩টি চামড়া ৫শ টাকা করে কিনে ৪শ’ করে বিক্রি করেন তিনি।

এভাবেই চামড়া কিনে ক্ষতিগ্রস্ত হন শতাধিক খুচরা চামড়া ব্যবসায়ী। সন্ধ্যা পর্যন্ত গরু, মহিষের চামড়া সর্বোচ্চ ৩শ’ টাকা আর ছাগল ও ভেড়ার চামড়া ৫০ থেকে ১০০ টাকা পর্যন্ত দাম উঠেছে।

অভিযোগ, শহরের একটু দূরে ভাড়ায় ট্রাকে করে চামড়া শহরে এনে বিক্রি করে ট্রাক ভাড়ার টাকাই উঠেনি কারো কারো।

কুমিল্লায় ট্রাকে করে চামড়া নিয়ে আসা বুড়িচং উপজেলা ও সদরের পাচথুবী ইউনিয়নের চামড়া ব্যবসায়ীরা অস্বাভাবিক দরপতনে হতাশা প্রকাশ করে গোমতী নদীতে চামড়া ফেলে দেন।

জেডআই

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত