শিরোনাম

১৭ শিক্ষার্থী ফেল: প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে মানববন্ধন

গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি  |  ১২:৫৪, জুন ১৩, ২০১৯

নাটোরের গুরুদাসপুরের বাংলাদেশ কারিগরি বোর্ডের ভোকেশনাল শাখার ২০১৭/২০১৮ শিক্ষাবর্ষে -২০১৯ সালের এসএসসি পরীক্ষায় ব্যবহারিক নাম্বার না দেয়ায় ১৭ জন শিক্ষার্থী অকৃতকার্য হওয়ায় প্রধান শিক্ষক মো.জারজেস হোসেন এর পদত্যাগ ও সংশ্লীষ্ঠদের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন উপজেলার পুরুলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী ও অভিভাবকবৃন্দ।

বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টায় পুরুলিয়া আদর্শ বহুমুখি উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী ও অভিভাবক বৃন্দের আয়োজনে স্কুলের শিক্ষার্থীসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গের উপস্থিতিতে উক্ত মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

পরীক্ষার্থী আবুল বাশার, ময়লাল, আবির, মহিদুলসহ অন্যরা অভিযোগ করে জানায়, প্রধান শিক্ষক জারজিস ইসলাম ও সহকারী শিক্ষক নুর আলম স্যার ইচ্ছা করেই ব্যবহারিক নম্বর বোর্ডে পাঠায়নি। যার কারণে তারা সবাই ফেল করেছে। তারা ওই ঘটনার সাথে সংশ্লিষ্ট শিক্ষকদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবি জানান।

শিক্ষার্থী নাইম, শাকিল, রাশেল অভিযোগ করে বলেন, এই বিষয়ে প্রধান শিক্ষক স্যারের কাছে গতকাল জানতে গেলে তার ছেলে শাহিন আলম আমাদের মেরে ফেলার হুমকি দেয়। আমরা নিরাপত্তাহীনতা ভুকছি।

ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জারজিস ইসলাম ব্যবহারিক নম্বর বোর্ডে দেয়া স্বীকার করে বলেন, ব্যবহারিক নম্বর বোর্ডে প্রথমে ভুলবশত পাঠানো হয়নিা। পরবর্তীতে ব্যবহারিক নম্বর দিয়ে পাঠিয়েও রেজাল্ট আসে নাই। এবিষয়ে বোর্ড কর্মকর্তাদের সাথে আবারও কথা হয়েছে, আশা করছি রেজাল্ট আসবে।

এবিষয়ে মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা হাফিজুর রহমান বলেন, ওই শিক্ষার্থীদের জীবন এখন সংসয়ে রয়েছে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব অবহেলার কারণেই মূলত এঘটনা ঘটেছে। বিধিমোতাবেক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এমআর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত