ধলেশ্বরী নদীতে নিখোঁজ স্কুলছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার

আপেল মাহমুদ চৌধুরী, সাটুরিয়া (মানিকগঞ্জ)  |  ১২:০৪, জুন ১৩, ২০১৯

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় ধলেশ্বরী নদীতে গোসল করতে গিয়ে নিখোঁজ হওয়া তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী শারমিন আক্তারের (৯) মরদেহ একদিন পর উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহষ্পতিবার ধলেশ্বরী নদীর তিল্লি এলাকায় তার মরদেহ ভেসে উঠে।

মৃত স্কুলছাত্রী শারমিন স্থানীয় গোপালপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী। সে উপজেলার বরাইদ ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামের মোঃ সোহাগ আলীর মেয়ে।

গতকাল বুধবার বাড়ি পাশের ধলেশ্বরী নদীতে গোসল করতে গিয়ে হঠাৎ নদীর পানিতে ডুবে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজির পরও না পেয়ে মানিকগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনে খবর দেয়া হলে দমকল বাহিনী সদস্যরা খোঁজাখুজি করে ব্যর্থ হয়। দুপুর থেকে ডুবুরি দল এসে রাত নয়টা পর্যন্ত খোঁজাখুজি করেও শারমিনকে উদ্ধার করতে না পেরে অভিযান সমাপ্ত করেন তারা।

বৃহষ্পতিবার সকাল সাড়ে দশটায় ঘটনাস্থল থেকে আড়াই কিলোমিটার ভাটিতে শারমিনের মরদেহ ভেসে থাকতে দেখে স্থানীয়রা। পরে দমকল বাহিনী সদস্যরা শারমিনের মরদেহ উদ্ধার করে।

বরাইদ ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান মোঃ হারুন-অর-রশিদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে জানান, শারমিনের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

এমআর