শিরোনাম

ঝড়-বৃষ্টির সময় যে দোয়া পড়তে হয়

আমার সংবাদ ডেস্ক  |  ১৮:০৪, এপ্রিল ২১, ২০১৮

যে কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগসহ নানা সমস্যায় প্রতিটি মুসলমান আল্লাহ তায়ালার কাছে আশ্রয় প্রার্থনা করে। এজন্য তারা বিভিন্ন দোয়া দরুদ পড়ে থাকেন। কেননা আল্লাহ তায়ালা হলেন মানুষের সর্বশ্রেষ্ঠ আশ্রয়দাতা।এখন চলছে বৈশাখ মাস। বাংলাদেশে এসময় প্রবল বৃষ্টি ঝড়ো হাওয়া, ঘূর্ণিঝড় হয়ে থাকে। ঝড়ো বৃষ্টির সময় অনেকে ভয়ে চিকিৎকার শুরু করেন।কিন্তু সে সময় শান্ত থেকে দোয়া পড়া উচিত। বৃষ্টিসহ সব প্রাকৃতিক দুর্যোগে যে সব দোয়া পড়বেন তার কয়েকটি তুলে ধরা হলো-

বৃষ্টি হলে যে দোয়া পড়বেন-

উচ্চারণ : আল্লাহুম্মা ইন্নি আউজুবিকা মিন সারির মা ফিহি (বুখারি)

অর্থ : হে আল্লাহ! আমি আপনার কাছে আশ্রয় চাই, এ মেঘের মধ্যে যে অনিষ্ট রয়েছে তার থেকে।

মেঘের গর্জনের যে দোয়া পড়তে হয়-

হজরত আব্দুল্লাহ ইবন যুবাইর রাদিয়াল্লাহু আনহু যখন মেঘের গর্জন শুনতেন তখন কথা বলা বন্ধ করে দিতেন এবং কুরআন মাজিদের এই আয়াত তিলাওয়াত করতেন-

উচ্চারণ : ‘সুবহানাল্লাজি ইউসাব্বিহুর রা`দু বিহামদিহি ওয়াল মালাইকাতু মিন খিফাতিহি।’ (মুয়াত্তা)

প্রতিদিনই মানুষ নানা বিপদ ও সমস্যার মধ্য দিয়ে দিন অতিবাহিত করেন। হাদিসে আছে এসব বিপদ ও বালা মসিবাত থেকে রক্ষা পেতে সর্বদা আল্লাহর রহমত ও সাহায্য কামনা করা উচিত।

বিপদ ও বালা মসিবাত থেকে রক্ষা পেতে প্রতিদিন এই দোয়া পড়তে হবে-
রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, যে ব্যক্তি প্রত্যেক সকাল এবং সন্ধ্যায় নিন্মোক্ত দোয়াটি পড়বে; তাকে কোনো বিপদাপদ, বালা-মসিবাত স্পর্শ করবে না-
উচ্চারণ : ‘বিসমিল্লাহিল লাজি লা ইয়াদূররু মাআস মিহি শাইয়ুন ফিল আরদি ওয়ালা ফিস সামিই ওয়াহুয়া সামিয়ুল আলিম।’ (তিরমিজি, ইবনু মাজাহ, মিশকাত)।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত