শিরোনাম

অবৈধ প্রবাসীদের ৬ মাস জেল, ৫০ হাজার রিয়াল জরিমানা: সৌদি সরকার

আমার সংবাদ ডেস্ক  |  ১১:২৪, আগস্ট ০১, ২০১৭

সৌদি আরবে থাকা অবৈধ বিদেশি শ্রমিকদের কঠিন শাস্তির মুখোমুখি হতে হবে বলে ঘোষণা দিয়েছে দেশটির সরকার। এই সাজার মধ্যে রয়েছে ছয় মাস পর্যন্ত জেল, ৫০ হাজার রিয়াল জরিমানা এবং সৌদি আরব থেকে বের করে দেওয়া।

গতকাল সোমবার ‘নেশন ফ্রি অব ভাওলেটরস’ শিরোনামে চার মাস মেয়াদি সাধারণ ক্ষমার সময় শেষ হওয়ার পর এমন ঘোষণা দিয়েছেন সৌদি আরবের পাসপোর্ট বিভাগের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল সোলাইমান আল ইয়াহিয়া। স্থানীয় পত্রিকা ‘আল মদিনা’, ‘সৌদি গেজেট’ ও ‘আরব নিউজ’ পত্রিকাকে দেওয়া বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘সাধারণ ক্ষমার সময় কোনোভাবেই আর বাড়ানো হবে না। যেসব অবৈধ প্রবাসী সাধারণ ক্ষমার সুযোগ নেননি তাঁরা অবিবেচক। তাঁরা আইনের প্রতি কোনো সম্মান দেখাননি। তাঁদের এখন শাস্তি পেতে হবে। স্বেচ্ছায় সৌদি আরব ছাড়া এবং পরে যে কোনো সময় বৈধভাবে আবার সৌদি আরবে আসার জন্য সুযোগ রাখা হয়েছিল তাদের জন্য। এটা ছিল তাদের জন্য সুবর্ণ সুযোগ।’

শুধু অবৈধ শ্রমিক নয়, যারা নিয়োগকর্তার কাজ ছাড়া অন্য কোনো কাজের সঙ্গে জড়িত তাদেরকেও সাজার মুখোমুখি হতে হবে। এ ক্ষেত্রে প্রথমবারের মতো কাজের আইন ভঙ্গ করার শাস্তি হিসেবে ১০ হাজার রিয়াল জরিমানা গুনতে হবে এবং নিজের দেশে ফেরত যেতে হবে। দ্বিতীয়বার একই অপরাধ করলে ২৫ হাজার রিয়াল জরিমানা, এক মাসের জেল এবং নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে। আর তৃতীয়বারের মতো একই অপরাধ করলে ৫০ হাজার সৌদি রিয়াল জরিমানা, ছয় মাসের জেল এবং বাধ্যতামূলকভাবে নিজ দেশে ফিরে যেতে হবে।

সৌদি আরব কিছুদিন আগে থেকে আইন লঙ্ঘনমুক্ত দেশ গঠনের ঘোষণা দিয়ে প্রচার শুরু করে। এর আওতায় সাধারণ ক্ষমার মাধ্যমে অবৈধ শ্রমিকদের নিজ নিজ দেশে ফিরে যাওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়। প্রাথমিকভাবে এই সাধারণ ক্ষমার সুযোগ নেওয়ার জন্য ৯০ দিন সময় দেওয়া হয়। তারপর অবৈধ প্রবাসীদের নিজ নিজ দেশে ফিরে যাওয়ার জন্য সরকার আরো এক মাস সময় বাড়ায়। মার্চে শুরু হওয়া এই সাধারণ ক্ষমার সুযোগ গ্রহণ করে এরই মধ্যে প্রায় ছয় লাখ অবৈধ প্রবাসী নিজ দেশে ফিরে গেছে বলে জানানো হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত