শিরোনাম
রায়পুরের পথসভায় জননেতা হাশেম রেজা

উন্নয়ন ও সৌভাগ্যের প্রতীক নৌকায় ভোট দিন

প্রিন্ট সংস্করণ॥আজাদ হোসেন ও জিল্লুর রহমান মধূ, চুয়াডাঙ্গা  |  ০০:৫০, আগস্ট ২১, ২০১৮

চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের আওতাধীন জীবননগর উপজেলার রায়পুর বাজারে অনুষ্ঠিত দলীয় এক জনাকীর্ণ পথসভায় এ আসনে দলের মনোনয়নপ্রত্যাশী বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির অন্যতম সহ-সম্পাদক জাতীয়পর্যায়ের প্রতিষ্ঠিত সাংবাদিক, গরিব-দুখী ও মেহনতি মানুষের বন্ধু জননেতা হাশেম রেজা বলেছেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এ এলাকার কোনো নেতাকে দেখে নয়, উন্নয়ন ও সৌভাগ্যের প্রতীক এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর রেখে যাওয়া নৌকায় ভোট দিবেন। নৌকার দক্ষ কান্ডাির জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকারের জয়যাত্রা অব্যাহত রাখতে, সকল অপশক্তির মোকাবিলা করতে এবং ২০২১ সালের ভিশন বাস্তবায়নে সকল ভেদাভেদ আর লবিয়িং-গ্রুপিং ভুলে নৌকাকে বিজয়ী করা ছাড়া আমাদের সামনে আর কোনো বিকল্প নেই।তিনি উপস্থিত সকল মানুষ ও দলীয় নেতা-কর্মীকে সতর্ক করে বলেন, যদি সেটা করতে না পারেন তাহলে শুধু আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের একার বিপদ নয়। স্বাধীনতার স্বপক্ষের সকল শক্তিসহ দেশপ্রেমিক সব মানুষের বিপদ। মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী চক্র যদি আবারো এদেশের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আসার সুযোগ পায় তবে উন্নয়নের মহাসড়কে ধাবমান আমাদের প্রিয় মাতৃভূমিটি পুনরায় তার স্বাধীনতা হারাবে। হাজার বছর পিছিয়ে যাবে বিশ্বের সাথে পাল্লা দিয়ে চলা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা। ভূলুণ্ঠিত হবে দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব। বিশ্বের বুকে মর্যাদার আসনে আসীন বাংলাদেশ পথ হারাবে জঙ্গিবাদের হিংস্্র চোরাবালিতে। তাই নেতৃত্বের দ্ব›েদ্বর মাঝে জড়িয়ে দয়া করে বিভক্ত আওয়ামী লীগের সৃষ্টি করবেন না কেউ। দলের মনোনয়ন কে কে চেয়েছেন আর কে পেলেন, তিনি উপযুক্ত কিনা বা যাকে মনোনয়ন দেয়া হবে তার জনপ্রিয়তা কিংবা দোষ-ত্রুটি না খুঁজে প্রতিজ্ঞা করুন এ আহ্বান জানিয়ে জননেতা হাশেম রেজা আরও বলেন, স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধুকন্যা আজকের আধুনিক বাংলাদেশ গড়ার কারিগর এবং নৌকার মালিক জননেত্রী শেখ হাসিনা যার হাতে নৌকা তুলে দেবেন তার পক্ষেই আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে তাকে বিজয়ী করবো। গতকাল সোমবার বিকাল ৫টায় রায়পুর আওয়ামী লীগনেতা শ্রী স্বপন কুমার চক্রবর্ত্তীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিশাল এ পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তরুণ জনপ্রিয় নেতা হাশেম রেজা উপস্থিত সর্বস্তরের মানুষের উদ্দেশ্যে আরও বলেন, দলের মনোনয়ন কে পাবেন সেটা নিয়ে আপনাদের চিন্তার কোনো কারণ নেই। বাগানে অনেক ফুল ফুটবে, শোভা ছড়াবে, এর মাঝে যেটি বেশি সুন্দর ও শোভা ছড়াবে সেটিকেই জননেত্রী শেখ হাসিনা তুলে নেবেন আর মানুষের মাঝে তার শোভা ছড়িয়ে দেবেন। তিনি আরও জানান, আমি সবসময় আপনাদের পাশে থাকতে চাই, যেকোনো ধরনের প্রয়োজনে আমাকে ডাকবেন আমি দ্রুত আপনাদের মাঝে হাজির হবো। আমি আগামী নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন চাইবো এ কারণে আপনাদের কাছে আসিনি। আমি রাজনীতি করতে চাই, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন কর্মী হিসাবে আপনাদের সবার মাঝে জড়িয়ে থাকতে চাই। আমি মানুষের সেবা করি, নিজের অর্জিত অর্থ ব্যয় করে মানুষের উপকার করি, একজন প্রকৃত রাজনৈতিক কর্মী হয়ে রাজনীতিটাকে মানুষের কল্যাণে কাজে লাগাতে চাই। আমি খাল-বিল দখল করে, নিয়োগবাণিজ্য, অবৈধভাবে ভূমি দখল করে জনগণের কাছে অভিশপ্ত হতে চাই না। গণ-মানুষের নেতা হাশেম রেজা চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের বর্তমান সাংসদের সমালোচনা করে বলেন, তিনি আপনাদের ভোট নিয়ে বিজয়ী হয়ে আপনাদের ভুলে গেছেন, আমাদের উন্নয়নের সরকারের সাথে তাল মেলাতে তিনি ব্যর্থ হয়েছেন। ফলে এ এলাকার কাক্সিক্ষত উন্নয়ন করতে পারেননি। তিনি নিজের ও পরিবারের উন্নয়ন করেছেন। মাদকমুক্ত এলাকা গড়ার পরিবর্তে নিজ ঘরে এবং চামচাদের অর্থাৎ অতি পছন্দের লোকদের তিনি মাদক সম্রাট বানিয়ে চুয়াডাঙ্গায় চমক সৃষ্টি করতে সক্ষম হয়েছেন। মানুষ তার সকল অপকর্মের জবাব দেয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে এলাকার পরিবেশ দেখে প্রতীয়মান হচ্ছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন। জীবননগর উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শরীফুল ইসলাম মিন্টুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জানমহাম্মদ সেলিম, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হামিদ, হাউলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল হক মন্ডল, দামুড়হুদা উপজেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ম-সম্পাদক এসএম মহাসীন আলী, হাবিবুর রহমান হাবি, মেরাজুল ইসলাম মেরাজ, জুড়ানপুর ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম-সম্পাদক মজিবুল হক, জীবননগর উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা এইচএম হাকিম। উপস্থিত ছিলেন জীবননগর উপজেলা যুবলীগ নেতা মাহফুজুর রহমান শাকিল, যুবলীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলম, মাসুম বিল্লাহ মন্টু, জেলা মৎস্যজীবী লীগের সহ-সভাপতি সাংবাদিক মনিরুল ইসলাম, দামুড়হুদা উপজেলা মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্মলীগের সাধারণ সম্পাদক হাসান আল-বাখার ডলার, মেরাজুল ইসলাম মেরাজ, সাংবাদিক আজাদ হোসেন, জিল্লুর রহমান মধু, সালাহউদ্দীন, আব্দুল মজিদ, আন্দুলবাড়িয়ার যুবলীগ নেতা জাহিদুল ইসলাম, রায়পুরের যুবলীগ নেতা শাহবুদ্দিন খান, মোহাম্মদ আলী, কবির হোসেন, জাফর, যুবলীগ নেতা জহিরুল ইসলাম, নব-গঠিত গড়াইটুপি ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা শরিফুল ইসলাম, বিশারত আলী, শহিদুল ইসলাম, ছাত্রলীগ নেতা রঞ্জুসহ অনেকে। সন্ধ্যার পর জননেতা হাশেম রেজা দলীয় নেতা-কর্মীদের সাথে নিয়ে চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের জীবননগর উপজেলার বিভিন্ন মহল্লা, হাট-বাজার ও জনপদে গণ-সংযোগ করেন।
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত