শিরোনাম

মাদকসম্রাট সংসদেই আছে, তাদের ফাঁসির দড়িতে ঝুলান: এরশাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক  |  ২৩:৫৫, মে ২৩, ২০১৮

জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত এইচ এম এরশাদ মাদক নির্মূলের নামে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ হত্যার কঠোর সমালোচনা করেছেন।

বুধবার (২৩মে) বিকেলে রাজধানীর কাকরাইলে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে জাপার ইফতার অনুষ্ঠানে এরশাদ এ কথা বলেন। ইফতার অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন জাপার সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান রওশন এরশাদ, কো-চেয়ারম্যান জি এম কাদের, মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জিয়াউদ্দিন বাবলু, সৈয়দ আবু হোসেন প্রমুখ।

এসময় এরশাদ বলেন, ‘মাদক নির্মূলের নামে যাদের হত্যা করা হচ্ছে, তারা কারা আমরা জানি না। মাদকসম্রাট তো সংসদেই আছে। তাদের বিচারের মাধ্যমে ফাঁসির দড়িতে ঝুলান।’

এরশাদ সরকারের উদ্দেশে বলেন, এভাবে বিনা বিচারে মানুষ হত্যা করতে পারেন না। প্রত্যেক নাগরিকেরই সাংবিধানিকভাবে বিচার পাওয়ার অধিকার আছে। বিশ্ব এটা মেনে নেবে না। মাদক নির্মূলে আগামী সংসদ অধিবেশনেই সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড বহাল রেখে আইন করার জন্য তিনি সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশের পর আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মাদক নির্মূলে যে অভিযানে নেমেছে, তাতে প্রতিরাতেই গুলিবিদ্ধ হয়ে অনেকে মারা যাচ্ছেন।
অভিযানের সময় গোলাগুলি তাদের মৃত্যুর কারণ বলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দাবি করলেও এই বক্তব্যের গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন মানবাধিকার কর্মীরা। কথিত এই বন্দুকযুদ্ধের রাজনৈতিক উদ্দেশ্য রয়েছে বলে বিএনপি দাবি তোলার পর এখন আওয়ামী লীগের ঘনিষ্ঠ এরশাদের কাছ থেকেও তা নিয়ে প্রশ্ন উঠল।

রাজধানীর ঢাকায় যানজট প্রসঙ্গে এরশাদ বলেন, ‘যানজটের কারণে প্রতিদিন হাজার হাজার কোটি টাকা ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে দেশ। এ থেকে পরিত্রাণ পেতে হলে বিকেন্দ্রীকরণ করতে হবে। প্রাদেশিক শাসনব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করতে হবে। জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় এলে এগুলো বাস্তবায়ন করে ঢাকাকে যানজট মুক্ত করব।’

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত