শিরোনাম

জিয়া স্বাধীনতার চেতনা মূল্যবোধকে ধ্বংস করেছে : তোফায়েল

ভোলা প্রতিনিধি  |  ১৩:৫০, মার্চ ২৩, ২০১৯

ভোলা-১ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) ও সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় থাকাকালে দেশের স্বাধীনতা চেতনার মূল্যবোধকে ধ্বংস করেছে। জিয়াউর রহমান দালাল আইন বাতিল করে যুদ্ধাপরাধী, মানবতাবিরোধী, রাজাকার, আলবদরদের জেলখানা থেকে মুক্ত করেছিলেন। নিষিদ্ধ ঘোষিত রাজনৈতিক দল জামায়াতে ইসলামীকে রাজনীতি করার সুযোগ করে দিয়েছিলেন।

আর খালেদা জিয়া ক্ষমতায় এসে মানবতাবিরোধী যুদ্ধোপরাধীদের গাড়িতে পতাকা দিয়েছে এবং স্বাধীনতা বিরোধীদের রাজনীতিতে পুনর্বাসন করেছিল। বঙ্গবন্ধুর খুনী রশিদকে খালেদা জিয়া পার্লামেন্টের সদস্য করেছে। যার কারণেই আজ বিএনপির পতন হয়েছে।

শনিবার (২৩ মার্চ) সকালে ভোলা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মোশারেরফ হোসেনের সভাপতিত্বে- বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মমিন টুলু, সদর উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম গোলদার, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মঈনুল হোসেন বিপ্লব, জেলা আ.লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম নকীব ও এনামুল হক আরজু, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মাদ ইউনুস প্রমূখ। এছাড়াও অন্যন্যাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগ, যুবলীগ,ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ,কৃষকলীগ,শ্রমিকলীগসহ অঙ্গ-সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। উক্ত মতবিনিময় সভাটি সঞ্চালনায় ছিলেন- সদর উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল ইসলাম ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম।

এসময় তোফায়েল আহমেদ আরো বলেন, বিএনপি ২০০১ সালে ক্ষমতায় এসে মানুষকে নির্যাতন করেছে। মা বোনের ইজ্জত লুট করেছে। সুস্থ সবল মানুষের চোখ তুলে নিয়েছে। এজন্য মানুষ তাদের কাছ থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। বিএনপি এখন দেশে-বিদেশে ষড়যন্ত্র করছে। কিন্তু ষড়যন্ত্র করে কোনো লাভ নেই।'

সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি আজকে দেশে-বিদেশে ষড়যন্ত্র করছে। কিন্তু ষড়যন্ত্র করে কোনো লাভ নেই। আমাদের প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা আজ বিশ্বের শ্রেষ্ঠ নেতা। তিনি বাংলাদেশের গ্রামকে শহর করেছেন। পদ্মা ব্রিজ করে চলেছেন। তার শাষণ আমলে দেশে প্রচুর উন্নয়ন হয়েছে। বর্তমান সরকারের আমলে ভোলায় ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। মৃত্যুর দিন পর্যন্ত আমি আপনাদের সঙ্গে থাকবো।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙ্গালী জাতির জন্য যা রেখে গেছেন তা আমরা কোনদিন শোধ করতে পারবো না। তার ঋণ কিছুটা শোধ করার জন্য ১৯৬৯ এ বঙ্গবন্ধু উপাধি দিয়েছিলাম। বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেলে পরিনত হয়েছে। এক সময় এই ভোলা কি ছিল, আজ সেই ভোলায় ব্যাপক উন্নয়ন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত