শিরোনাম

কবর থেকে লাশ তুলে জাঁকজমক অনুষ্ঠান!

আমার সংবাদ ডেস্ক  |  ১৫:২৯, মার্চ ০৮, ২০১৯

ইন্দোনেশিয়ার সুলাওয়েসি পর্বতের গ্রামবাসী কিছু অদ্ভুদ সামাজিক রীতি পালন করে থাকে। মৃতের জন্য অন্তেষ্টিক্রিয়া বা শেষকৃত্য অনুষ্ঠানের পর সপ্তাহখানেক পর মৃতদেহকে কবর থেকে তুলে জাঁকজমক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। গ্রামের অধিবাসী তোরাজান উপজাতি এই অন্তেষ্টিক্রিয়া বা শেষকৃত্য অনুষ্ঠানের ব্যবস্থা একবার নয়, এমনটি করে থাকে প্রতি তিন বছর পর পর।গত কয়েক শতাব্দী ধরে এমন অদ্ভুত রীতি পালন করে আসছেন তোরাজান উপজাতি। শতাব্দী প্রাচীন এ রীতির নাম ‘মানিন’।

দেশটির এক গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, ওই গ্রামের বাসিন্দারা প্রতি তিন বছর পর পর তাদের মৃত স্বজনদের দেহ কবর থেকে তুলে আনেন। মৃতদের পুরনো কাপড় বদলে নতুন কাপড় পরিয়ে দেন। এর পর সাজিয়ে-গুজিয়ে হইহুল্লোড় করে বাড়ি নিয়ে যান তারা। মৃতকে আবার সমাধিস্থ করার আগে কফিনকে মেরামত ও সুসজ্জিত করেন তারা। এছাড়া মৃতকে বাড়ি নিয়ে পালন করা হয় নানা ধরনের অনুষ্ঠান।

তোরাজান উপজাতির বিশ্বাস, এই মৃত্যুই জীবনের শেষ নয়, এটি শুধু আধ্যাত্মিক জীবনে প্রবেশের একটি পর্যায়। এছাড়া মৃতদের আত্মা প্রিয়জনের কাছে ফিরে আসে বলেও বিশ্বাস করেন তারা।তাই প্রতি বছর মৃতরা কেমন আছেন তা দেখতে এবং মৃতের পরিজনরা কেমন আছেন, তা দেখাতে মৃতকে কবর থেকে তুলে আনা হয়। এভাবে তিন বছর ধরে চলে এমন রীতি। অত্যন্ত শ্রদ্ধা ও ভালোবাসার সঙ্গে এমন অদ্ভুত রীতি শতাব্দী ধরে পালন করে আসছেন তোরাজানরা। এই সম্প্রদাযের লোকজন এখনও বেশ জাঁকজমকে ভাবে এই রীতি পালনে করে থাকেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত