শিরোনাম

হংকংয়ে শান্তির ঘুম মেলে খাবারের দোকানে

আমার সংবাদ ডেস্ক  |  ১৩:৪২, জানুয়ারি ৩১, ২০১৯

হংকংয়ে অসংখ্য মানুষ রাতের পর রাত ঘুমাচ্ছেন ফাস্টফুড শপে। জানা গেছে, ‘শান্তিতে’ ঘুমাতে চান, তাই এসব মানুষের পছন্দ খাবারের দোকান। এমন অদ্ভুত আচরণের কারণ খুঁজতে গিয়ে বেরিয়ে এলো মন খারাপ করা কিছু তথ্য।

নিজের ঘরবাড়ি ছেড়ে হংকংবাসীর হোটেলে ঘুমানোর কারণ সেখানকার বর্তমান আর্থসামাজিক সমস্যা। শহরটিতে প্রতি বর্গফুট ঘরের দাম বর্তমানে গড়ে ১ হাজার ৭০০ মার্কিন ডলার (১ লাখ ৪২ হাজার টাকারও বেশি)। তাই এসব মানুষের বেশিরভাগেরই আয়-রোজগার এবং রাত কাটানোর নির্দিষ্ট ঠিকানা থাকার পরও তারা খাবারের দোকানে ঘুমাচ্ছেন।

তাদের বেশিরভাগই বলছে, আকাশছোঁয়া দৈনন্দিন খরচের চাপে তারা নাজেহাল। কারও বাড়িভাড়া দেয়ার মতো টাকা থাকে না, নয়তো গরম লাগলে ঘরে এয়ারকন্ডিশনার ব্যবহার করার সামর্থ্য নেই। কেউ আবার অতিরিক্ত বিদ্যুতের বিল মেটাতে গিয়ে অতিষ্ঠ।

এত অশান্তি এড়িয়ে দিনশেষে শান্তির ঘুম খুঁজতে হংকংবাসীদের অনেক মানুষের বিছানা এখন টুয়েন্টিফোর আওয়ার্স রেস্টুরেন্টের চেয়ার-টেবিল। বিনিময়ে সামান্য পিত্জা বা বার্গার অর্ডার করলেই দোকানের মালিক খুশি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত