শিরোনাম

যে রেস্তোরাঁয় পরিবেশিত হয় ‘বাতাস ভাজা’!

আমার সংবাদ ডেস্ক  |  ১৫:৪৬, মে ২৫, ২০১৯

যে রেস্তোরাঁয় পরিবেশিত হয় `বাতাস ভাজা‘!
খাবারের মেনুতে এ নাগাদ অনেক আচানক বস্তুই দেখা গেছে। তবে এবার যুক্ত হচ্ছে সবচেয়ে আশ্চর্য একটি বস্তু।

চিপসের প্যাকেটে চিপস কম, বাতাস বেশি থাকে। তাই আমরা বলি, দোকানি আমাদের কাছে বাতাস বিক্রি করল। প্রকৃতপক্ষে প্যাকেটে বাতাস থাকলেও সে বাতাস খাওয়ার জন্য আমরা চিপসের প্যাকেট কিনি না, কিনি চিপস খাওয়ার জন্যই।

কেউ যদি এখন সত্যি সত্যিই বাতাস কিনে খাওয়ার কথা বলে? বিশ্বাস হবে কারো? বিশ্বাস না হলেও এই অদ্ভূত কথাটাকে সত্যি করে দেখিয়েছে ইটালির একটি রেস্টুরেন্ট।

কাস্টলফ্রাঙ্ক ওয়েন্ডো নামক ওই রেস্টুরেন্টটি একটি ব্যতিক্রম ডিস দিয়ে কাস্টমারদের আপ্যায়ন শুরু করে। ডিসটির নাম ‘ফ্রাইড এয়ার’ বা ভাজা বাতাস।

রেস্টুরেন্টের প্রধান বাবুর্চি নিকোলা ডিনাটো সতেজ হাওয়ায় শ্বাস নেয়ার জন্য একটি ডিস পরিবেশন করতে চাচ্ছিলেন। একটি ডিস রেডিও করলেন। নাম দিলেন ভাজা বাতাস। নামটা একটু বিভ্রান্তিকর হলেও রেস্টুরেন্টন্টি প্রসিদ্ধ  হওয়ার পেছনে এ নামটিই ভূমিকা পালন করেছে।

মূলত ডিসটি বানানো হয় সুজি দিয়ে। প্রথমে সুজি সেদ্ধ করা হয়। তারপর তেলে ভাজা হয়। এতে খাবারটিতে প্রচুর পরিমাণে বাতাস ঢুকে যায় বা বাতাসের কিছু ওজন সেটাতে বিদ্যমান থাকে।

সুজি সেদ্ধ ও তেলে ভাজার পর সেটাকে ১০ মিনিট ওজন কমার জন্য রেখে দেয়া হয়। অতপর হাওয়াই মিঠাইয়ের ওপর রাখা হয় ফ্রাইড এয়ার।

অনলাইন দুনিয়ায় এই ভাজা বাতাস খুবই প্রসিদ্ধ হয়ে উঠেছে। কারণ এটা খাওয়া একটু দু:সাধ্য। কারণ দাম যেমন বেশি, পাওয়াও যায় কম।

রেস্টুরেন্টে এক প্লেট ভাজা বাতাসের দাম ত্রিশ ডলার। অবশ্য রেস্টুরেন্টটির এক কর্মচারী বলেন, এ ডিসটি বিক্রির জন্য নয় মূলত, রেস্টুরেন্টে আগত বিশেষ অতিথিদের অভ্যর্থনা জানানোর জন্য তৈরি করা হয়ে থাকে।

এসএস

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত