শিরোনাম

হাতের রেখা বলে দেবে আপনি কতটা ধনী হবেন

আমার সংবাদ ডেস্ক  |  ১৩:২৫, অক্টোবর ৩০, ২০১৮

সুখে থাকার জন্যেই না প্রতিদিনের এত পরিশ্রম! কেননা, টাকা-কড়ি না থাকলে জীবনটাই যে অচল। অথচ এমন মানুষও আছেন, যাঁরা বিনা পরিশ্রমেই প্রচুর ধন-সম্পত্তির মালিক হয়ে বসেন। কেন এমন হয়? জ্যোতিষ বলছে, সবটাই নির্ভর করছে হস্তরেখার বিশেষ কিছু বৈশিষ্ট্যের ওপর। জেনে নিন, বৈশিষ্ট্যগুলি কি কি?

জ্যোতিষশাস্ত্র মতে, একাধিক ভাগ্যরেখা থাকলে এবং হাতের তেলোয় সমস্ত গ্রহের অবস্থান সঠিক থাকলে সেই ব্যক্তির কোটিপতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। যাঁদের হাতের আঙুল সোজা, সরু এবং হৃদয়রেখা বৃহস্পতির নীচ পর্যন্ত বিস্তৃত তাঁদের কোনওদিন অর্থের অভাব ঘটবে না।

আয়ুরেখা থেকে একাধিক ভাগ্যরেখা বেরোলে এবং সেই সঙ্গে তালু নরম ও গোলাপি আভাযুক্ত হলে অগাধ ধন-সম্পত্তির মালিক হওয়া থেকে আপনাকে আটকানো মুস্কিল! শুধু তাই-ই নয়, তালু নরম হওয়ার পাশপাশি ভারী আর চওড়া হলে কোনওদিন অর্থ-কষ্টে ভুগতে হবে না। যাঁর হাতে আয়ুরেখার সঙ্গে মঙ্গলরেখাও পুরোপুরি স্পষ্টভাবে দেখা যায় এবং তালু ভারী হয় সেই ব্যক্তি পৈতৃক সম্পত্তির অধিকারী হন।

জ্যোতিষশাস্ত্র আরও বলছে, হাতে একাধিক ভাগ্যরেখা থাকা এবং আঙুলের মাপ প্রায় সমান হওয়া মানেই সেই ব্যক্তি অনায়াসে অর্থ-সম্পদের অধিকারী হন।
কোনও ব্যক্তির আয়ুরেখা আর ভাগ্যরেখার মধ্যে দূরত্ব থাকলে, কোনও রেখা চন্দ্রের ঘর থেকে বেরিয়ে ভাগ্যরেখার সঙ্গে যুক্ত হলে, চন্দ্র, ভাগ্য ও শির-- এই তিন রেখা মিলে তালুতে ত্রিকোণ আকার গঠন করলে এবং সেই সঙ্গে আঙুলের গড়ন সোজা হলে ও সমস্ত গ্রহের অবস্থান সঠিক থাকলে আকস্মিক অর্থ বা সম্পত্তির মালিক হওয়ার যোগ রয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত