শিরোনাম

মানিকগঞ্জে তরুণীকে ধর্ষণ : ২ পুলিশ রিমান্ডে

আমার সংবাদ ডেস্ক  |  ১৬:৩৯, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৯

মানিকগঞ্জে তরুণী ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে ৬ দিন করে রিমান্ডে দিয়েছেন আদালক। সঙ্হ?ল মঙ্গলবার (১২ফেব্রুয়ারি) দুপুরে তাদের আদালতে হাজির করা হলে আদালত এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

মানিকগঞ্জ বিচারিক হাকিম আদালত-৭-এ হাজির করে পুলিশ তাদের প্রত্যেকের ১০ দিন করে রিমান্ডের আবেদন করে। শুনানি নিয়ে বিচারক মোহাম্মদ গোলাম সারোয়ার তাদের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে আজ সকালে ঢাকার ধামরাই উপজেলার কালামপুর এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এই দুই পুলিশ কর্মকর্তা হলেন সাটুরিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সেকেন্দার হোসেন ও সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মাজহারুল ইসলাম।

ধর্ষণের ঘটনায় সমালোচনার ঝড় বইছে পুরো মানিকগঞ্জে। অভিযুক্তদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন। আর ভুক্তভোগী তরুণীকে আইনি সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন পুলিশ সুপার।

ভুক্তভোগী তরুণী গত বুধবার পাওনা টাকা আদায়ে খালার সাথে মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া থানার এসআই সেকেন্দার হোসেনের কাছে গিয়েছিলেন তিনি। পরে সেখান থেকে তাদেরকে নিয়ে যাওয়া হয় উপজেলা ডাকবাংলোতে। অস্ত্রের মুখে দুই দিন আটকে রেখে জোরপূর্বক ইয়াবা সেবন আর ধর্ষণ করা হয় ওই তরুণীকে। আর খালাকে আটকে রাখা হয় অন্যরুমে।

ঘটনার তিনদিন পর দুই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেন ওই তরুণী। তাৎক্ষণিকভাবে অভিযুক্তদেরকে প্রত্যাহার করা হয় পুলিশ লাইনে। প্রাথমিক তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পান কমিটির সদস্যরা। আর দোষী প্রমাণিত হলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছেন জেলা পুলিশ সুপার। সোমবার রাতে এসআই সেকান্দার হোসেন ও এএসআই মাজহারুল ইসলামকে আসামি করে মামলা করেছেন ভুক্তভোগী তরুণী।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত