শিরোনাম

৩৩১ জন উপজেলা টেকনিশিয়ানদের রাজস্বখাতে স্থানান্তরের নির্দেশ

আদালত প্রতিবেদক  |  ১৭:৩৬, ফেব্রুয়ারি ০১, ২০১৮

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রনালয়ের অধীনে প্রতিটি উপজেলায় কর্মরত ৩৩১ জন উপজেলা টেকনিশিয়ানদের রাজস্বখাতে স্থানান্তরের নির্দেশনা দিয়ে রায় প্রদান করেছেন হাইকোর্ট। বৃহস্পতিবার (০১ ফেব্রুয়ারি) ইনফো-সরকার প্রকল্পের অধীন কর্মরত উপজেলা টেকনিশিয়ানদের রাজস্বখাতে স্থানান্তরের নির্দেশনা চেয়ে দায়ের করা পৃথক দুটি রীট পিটিশনের চূড়ান্ত শুনানি শেষে বিচারপতি আশফাকুল ইসলাম ও বিচারপতি কে.এম.কামরুল কাদের এর সমন্বয়ে গঠিত ডিভিশন বেঞ্চ এই রায় প্রদান করে রীট পিটিশন দুটি নিষ্পত্তি করেন। রিট আবেদনকারীদের পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবী এ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্যাহ মিয়া এবং রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি এটর্নি জেনারেল আল আমিন সরকার।

রীটকারীদের আইনজীবী ছিদ্দিক উল্যাহ মিয়া বলেন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ ও বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল অধীন ‘‘ন্যাশনাল আইসিটি ইনফ্রা-নেটওয়ার্ক ফর বাংলাদেশ গভর্নমেন্ট ফেজ-২ (ইনফো-সরকার)” প্রকল্পের আওতায় গৃহীত কার্যক্রমসমূহ বাস্তবায়ন ও তদারকির জন্য বাংলাদেশের প্রতিটি উপজেলায় আউটসোর্সিং ভিত্তিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে একজন উপজেলা টেকনিশিয়ান নিয়োগ করা হয়।

পরবর্তীতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় প্রতিটি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে কর্মরত উপজেলা টেকনিশিয়ানদের চাকুরি রাজস্বখাতে স্থানান্তরের জন্য বিভিন্ন সময়ে চিঠি দিয়ে আসছিল কিন্তু প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হলেও তাদেরকে রাজস্বখাতে স্থানান্তর করা হয়নি। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে কর্মরত উপজেলা টেকনিশিয়ানদের রাজস্বখাতে স্থানান্তর না করায়, রাজস্বখাতে স্থানান্তরের নির্দেশনা চেয়ে মহামান্য হাইকোর্টে পৃথক দুটি রীট দায়ের করেন ৩৩১ জন উপজেলা টেকনিশিয়ান। বিভিন্ন সময়ে রুল জারী করে আদালত। উক্ত রুলের চূড়ান্ত শুনানী শেষে বৃহস্পতিবার মহামান্য হাইকোর্ট তাদের পক্ষে এই রায় দেন।

রীটকারীগণ হলেন মাগুরা জেলার সদর উপজেলার মোঃ আশরাফুল আলম, ঝিনাইদহ জেলার হরিনাকুন্ড উপঝেলার জাহাঙ্গীর আলম, বগুরা জেলার শরীফুল, কুষ্টিয়া জেলার মাসুদ, পাবনা জেলার শামীম, বরিশালের হাসিব রনি, বরগুনার জসিম, ময়মনসিংহের নজরুল ইসলাম , কিশোরগঞ্জের কবির ও নওগার তানজিলা সহ ৩৩১ জন উপজেলা টেকনিশিয়ান।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত