শিরোনাম

ঢাকার ৬৯টি এলাকার পানি বেশি দূষিত : ওয়াসা

নিজস্ব প্রতিবেদক  |  ১৪:৫৪, মে ১৬, ২০১৯

রাজধানী ঢাকার ৬৯টি এলাকায় নিজেদের সরবরাহ করা পানি দূষিত বলে স্বীকার করেছে ঢাকা ওয়াসা। এই প্রথম ওয়াসার দূষিত পানির বিষয়টি স্বীকার করে আদালতে প্রতিবেদন জমা দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

বৃহস্পতিবার (১৬মে) বিচারপতি জেবিএম হাসানের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চে এই প্রতিবেদন জমা দেয়া হয়। প্রতিবেদন বলা হয়, ঢাকার ৬৯ এলাকার পানি বেশি দূষিত। ওয়াসার সরবরাহকৃত বাসা বাড়ির ট্যাপের পানি পরীক্ষা করে এই প্রতিবেদন করা হয়েছে।

এসময় আদালত কেবল পানি উৎপাদন করা ওয়াসার এমডির দায়িত্ব নয়, মানুষের দোরগোড়ায় বিশুদ্ধ পানি পৌঁছে দেওয়ায় তার কাজ বলে মন্তব্য করেন। ওয়াসার পানি দূষণের বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের প্রধানের মতামত জানতে চায় আদালত। আগামী ২১ মে তাকে আদালতে হাজিরের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এদিকে, পানি পরীক্ষায় ৭৬ লাখ টাকা খরচের দাবিতে ক্ষোভও প্রকাশ করে আদালত। জানান, ওয়াসার ভাব দেখে মনে হচ্ছে, এই টাকায় যেন তারা পানি বিশুদ্ধ করে খাওয়াবে।

বুধবার ওয়াসার পানির এক হাজার ৬৪টি নমুনা পরীক্ষায় ৭৬ লাখ টাকা লাগবে, এমন প্রতিবেদন দেয় স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।

এর আগে, গত সোমবার, শুনানিতে আদালতের নির্দেশের পরও ঢাকা ওয়াসার কোন কোন এলাকার পানি সবচেয়ে বেশি অনিরাপদ তা পরীক্ষা করে প্রতিবেদন না দেয়ায় অসন্তোষ প্রকাশ করে হাইকোর্ট। একইসঙ্গে ঢাকা ওয়াসার পানি পরীক্ষার খরচ নির্ধারণ করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়কে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছিল আদালত।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোতাহার হোসেন সাজু জানান, ‘২৯২টি বাড়ি থেকে যে অভিযোগ এসেছিল, সেই অভিযোগের আলোকেই ইতোমধ্যেই নমুনা পরিক্ষা করতে নেয়া হয়েছে। আর সেক্ষেত্রে আদালত অভিমত পোষণ করেছে যে, ওয়াসা শুধুমাত্র পানি সরবরাহ না, পুরোপুরি বাসা পর্যন্ত পৌঁছে দেয়া পর্যন্ত দায়িত্ব ওয়াসার।’

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত