শিরোনাম

খালেদার গ্যাটকো মামলা অভিযোগ শুনানি ১৮ জুন

আদালত প্রতিবেদক  |  ১৯:৩২, মে ১৪, ২০১৯

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা গ্যাটকো দুর্নীতি মামলার অভিযোগ গঠনের বিষয়ে শুনানির জন্য আগামী ১৮ জুন ধার্য করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার (১৪মে) কেরানীগঞ্জের কারা ভবনে নবনির্মিত ২ নম্বর ভবনে স্থাপিত অস্থায়ী ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৩ এর বিচারক আবু সৈয়দ দিলজার হোসেন আসামিপক্ষের সময় আবেদন মঞ্জুর করে এ তারিখ ধার্য করেন।

এদিন মামলাটি অভিযোগ শুনানির জন্য ধার্য ছিল। কিন্তু মামলার প্রধান আসামি খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসাধীন থাকায় কারা কর্তৃপক্ষ তাকে আদালতে হাজির করেনি।

বেলা সোয়া ১১টার দিকে আদালতের কার্যক্রম শুরু হয়। দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল বলেন, এ মামলার আসামি খালেদা জিয়া চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

খালেদা জিয়া আদালতে উপস্থিত না হওয়ায় মামলার কার্যক্রম বিলম্বিত হচ্ছে। এখানে অন্যান্য আসামিরা উপস্থিত আছেন। যাদের যা বক্তব্য আছে তারা তা উপস্থাপন করতে পারেন। তাহলে আমরা এগিয়ে যেতে পারব।

খালেদা জিয়ার আইনজীবী মাসুদ আহমেদ তালুকদার বিচারককে বলেন, আপনিও কষ্ট করে এসেছেন, আমরাও এসেছি। আইন দ্বারা প্রতিষ্ঠিত আদালত। আর নিরাপত্তার এমন কী বিঘ্ন হলো যে এখানে আদালত নিয়ে আসতে হবে। এখানে রাস্তা নেই, কষ্ট করে এসেছি। প্রতিদিন যদি আসতে হয়! যাই হোক, তাও আসব।

তিনি বলেন, জামিনে থাকা আসামিরা হাজির হয়েছেন। কাস্টডিতে থাকা আসামি খালেদা জিয়াকে আনা হয়নি। আসামির অনুপস্থিতিতে চার্জ শুনানি আইনসম্মত হয় না। তখন দুদক প্রসিকিউটর বলেন, কষ্ট করে এসেছেন তাহলে আপনারা শুরু করেন।

মাসুদ তালুকদার দুদক প্রসিকিউটরের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনি শুধু দুদকের পিপি নন, আমাদেরও পিপি। কাস্টডিতে থাকা আসামি খালেদা জিয়াকে আনেনি। আপনি বলবেন, আসামিকে আনা হয়নি, সময় দিন। এরপর তিনি আদালতকে একটা যৌক্তিক সময় দেওয়ার প্রার্থনা করেন। তিনি বলেন, মামলা যেহেতু এখানে এসেছে, যত কষ্ট হোক করে ফেলব।

তখনও মোশাররফ হোসেন কাজল উপস্থিত আসামিদের পক্ষে শুনানি করতে বলেন। আর যাকে আনা হয়নি তারটা পরে করবেন। একজন আসে নাই দেখে কি আপনারা কেউ করবেন না। যার যার মতো করে বলতে পারেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে আগামী ১৮ জুন চার্জ শুনানির পরবর্তী তারিখ ধার্য করেন।

এর আগে মামলাটির বিচারকাজ পুরান ঢাকার আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত অস্থায়ী আদালতে চলত। খালেদা জিয়ার নিম্ন আদালতে বিচারাধীন মামলাগুলোর বিচার কেরানীগঞ্জের কারা ভবন আদালত বসবে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় গত রোববার জারি করে।

দুর্নীতির দুই মামলায় দণ্ডিত বিএনপি চেয়ারপারসন এখন চিকিৎসার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে রয়েছেন। পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন সড়কের পুরনো কারাগারে এক বছরের বেশি সময় বন্দি থাকার পর গত ১ এপ্রিল চিকিৎসার জন্য তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়।

২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর রাজধানীর তেজগাঁও থানায় খালেদা জিয়াসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে গ্যাটকো দুর্নীতি মামলাটি দায়ের করেন দুদকের উপ-পরিচালক গোলাম শাহরিয়ার চৌধুরী।

২০০৮ সালের ১৩ মে তদন্ত শেষে দুদকের উপ-পরিচালক জহিরুল হুদা খালেদা জিয়াসহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। বর্তমানে এ মামলায় আসামির সংখ্যা ১৭ জন। সাত আসামি মারা গেছেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত