শিরোনাম

মানবাধিকার লঙ্ঘনে জাতিসংঘের উদ্বেগ বিচারের তাগাদা

প্রিন্ট সংস্করণ॥আমার সংবাদ ডেস্ক  |  ০০:০৮, জানুয়ারি ০৬, ২০১৯

জাতীয় সংসদ নির্বাচন চলাকালীন কিংবা এর আগে ও পরে যেসব মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটেছে তার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের বিচারের মুখোমুখি করতে বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ। জাতিসংঘ মানবাধিকার কমিশন (ওএইচসিআর) এক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানিয়েছে। গত বৃহস্পতিবার জেনেভা থেকে বিবৃতি দেয়ার পর সংস্থাটির মুখপাত্র রবিনা শামসাদানি বলেন, ভোটগ্রহণের দিন সেখানে প্রাণহানির ব্যাপারে বিশ্বাসযোগ্য তথ্য আমাদের হাতে আছে এবং সেদিন অনেকেই আহত হয়েছেন। তিনি আরও বলেন, বিরোধীদের প্রতি প্রতিহিংসামূলক কর্মকা- অব্যাহত থাকার উদ্বেগজনক ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। সেখানে অনেকের সঙ্গে বিশেষ করে বিরোধী পক্ষগুলোর বিরুদ্ধে শারীরিক হামলাসহ দুর্ব্যবহার, নির্বিচারে গ্রেপ্তার, হয়রানি ও মামলা দেয়া হয়েছে। যা সত্যিই উদ্বেগজনক পরিস্থিতির ইঙ্গিত বহন করে। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে সংস্থাটি বলেছ, নির্বাচনের সময় ক্ষমতাসীন দল বিরোধী দলের ওপর সহিংস আক্রমণ চালায়। এরকম ঘটনার যেন পুনরাবৃত্তি না ঘটে সে জন্য বাংলাদেশ সরকারকে যথাযথ ও জরুরি পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি। রবিনা শামসাদানি আরও বলেন, আমরা বিভিন্ন প্রতিবেদনের মাধ্যমে জানতে পেরেছি বাংলাদেশের বিতর্কিত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে কমপক্ষে দুজন সাংবাদিককে ভোটের দিন গ্রেপ্তার করা হয়েছে। যা স্বাধীন গণমাধ্যমের স্বাধীন ভূমিকার পথে বড় বাধা। তাছাড়া গত ১০ ডিসেম্বর ৫৪টি সংবাদবিষয়ক ওয়েবসাইট বন্ধ করে দিয়েছিল সরকার। যা মতপ্রকাশের স্বাধীনতাকে খর্ব করে। তিনি বলেন, ‘অপরাধীদের রাজনৈতিক পরিচয় যাই হোক না কেন নির্বাচনসম্পৃক্ত সহিংসতা ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের সব অভিযোগ দ্রুত, স্বাধীন, নিরপেক্ষ ও কার্যকর তদন্তের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষগুলোর প্রতি আমরা আহ্বান জানাই।’
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত