শিরোনাম

শিক্ষকদের মূল্যবোধ বিকাশের পরামর্শ শিক্ষামন্ত্রীর

আমার সংবাদ ডেস্ক  |  ২০:২৫, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৭

শিক্ষকদের সততা, নিষ্ঠা ও মূল্যবোধকে আরো বিকশিত করার পরামর্শ দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। তিনি বলেন, শিক্ষকতাকে পেশার চেয়েও অধিক কিছু। অনেক শিক্ষককে বিদেশে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। তাদের মানোন্নয়নের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। মধ্যম আয়ের দেশ এবং উন্নত বাংলাদেশ গড়তে হলে শিক্ষাদান পদ্ধতি ও শিক্ষকদের মানসিকতা আমূল পরিবর্তন করতে হবে। আমাদের মূল্যবোধ ও মানসিকতার বৈপ্লবিক পরিবর্তন করতে হবে।

রোববার রাজধানীর বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র মিলনায়তনে ‘মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা স্তরে মাল্টিমিডিয়া ক্লাস রুম সক্রিয়করণ' বিষয়ে কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতর এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এতে শিক্ষামন্ত্রী ‘মাল্টিমিডিয়া ক্লাস রুম মনিটরিং অ্যাপস’ উদ্বোধন করেন।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক ড. এস এম ওয়াহিদুজ্জামানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন কারিগরি ও মাদ্রাসা বিভাগের সচিব মো. আলমগীর, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. মহিউদ্দিন খান, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক ও এটুআই প্রকল্প পরিচালক কবির বিন আনোয়ার এবং মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মনিটরিং ও ইভ্যালুয়েশন উইংয়ের পরিচালক ড. মো. সেলিম মিয়া।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, দেশব্যাপী ২৩ হাজার ৫০০ মাল্টিমিডিয়া ক্লাস রুম চালু করা হয়েছে। শিক্ষায় প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়ানো হয়েছে। মাল্টিমিডিয়া ব্যবহার করে ক্লাস নেওয়া, মাল্টিমিডিয়া ক্লাস রুম ও মনিটরিং জোরদার করার ওপর গুরত্বারোপ করেন তিনি।

মন্ত্রণালয় ও অধিদফতর সংশ্লিষ্ট সবাইকে এ ব্যাপারে আরো তৎপর হওয়ার নির্দেশ দেন মন্ত্রী।

নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, শিক্ষায় আমাদের অনেক উন্নতি হয়েছে। শিক্ষায় ছেলেমেয়েদের মধ্যে সমতা অর্জিত হয়েছে। সব ছেলেমেয়েকে স্কুলে নিয়ে আসা সম্ভব হয়েছে। সংখ্যাগত দিক থেকে বড় সাফল্য এসেছে। নারী শিক্ষার অগ্রগতিতে বাংলাদেশ রোল মডেল। আমাদের পর্যায়ের কোন দেশ এখনও শিক্ষায় সমতা অর্জন করতে পারেনি। তবে শিক্ষার গুণগত মান বৃদ্ধি এখনও বড় চ্যালেঞ্জ। আজকের যুগের জন্য যে মান প্রয়োজন, এই মান আমরা অর্জন করতে পারিনি। বিশ্বব্যাপী এটা একটি চ্যালেঞ্জ। এজন্য এসডিজি-৪ এ মানসম্মত শিক্ষা অর্জনের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে। অন্তর্ভুক্তিমূলক, সমতাভিত্তিক এবং জীবনব্যাপী শিক্ষার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত