শিরোনাম

ঢাকায় সাড়ে ৯ লাখ শিশুকে ভিটামিন ‘এ প্লাস’ খাওয়ানো হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক  |  ১৭:৫৭, জুন ১৯, ২০১৯

ঢাকা দুই সিটি কর্পোরেশন এলাকায় সাড়ে ৯ লাখ শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

আগামী ২২ জুন দেশব্যাপী ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল ৬ মাস থেকে ৫৯ মাস বয়সী শিশুদের খাওয়ানো হবে। সিটি কর্পোরেশন এসব তথ্য জানায়।

জানা যায়, উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) সাড়ে পাঁচ লাখ এবং দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন (ডিএসসিসি) ৪ লাখ শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। ক্যাম্পেইন সুষ্ঠুভাবে সম্পাদনের লক্ষ্যে এ কার্যক্রমে সংশ্লিষ্ট সবাইকে ইতোমধ্যে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, ডিএনসিসি এলাকায় ৬ মাস থেকে ১১ মাস বয়সী ৮২ হাজার ১৫ শিশুকে এবং ১২ মাস থেকে ৫৯ মাস বয়সী ৪ লাখ ৪৮ হাজার ২৩৫ শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানোর লক্ষ্য রয়েছে। মোট এক হাজার ৪৯৯টি কেন্দ্রের (স্থায়ী কেন্দ্র ৪৯টি ও অস্থায়ী কেন্দ্র ১৪৫০) মাধ্যমে এ ক্যাম্পেইন চলবে।

আর ডিএসসিসি এলাকায় ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী ৫৫ হাজার ৯৫৫ শিশুকে একটি ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল এবং ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সী ৩ লাখ ৪৮ হাজার ৭০৪ শিশুকে দুটি নীল রঙের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

১ হাজার ৪৮৭টি কেন্দ্রের মাধ্যমে ২ হাজার ৯৭৪ স্বেচ্ছাসেবক ও ১১২ জন সুপারভাইজারের তত্ত্বাবধানে এ কর্মসূচি পালন করা হবে। দুই সিটির সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, ২২ জুন সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

সভায় স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলেন, শিশুর সুস্থভাবে বেঁচে থাকা, স্বাভাবিক বৃদ্ধি, দৃষ্টি শক্তির জন্য ভিটামিন ‘এ’ সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। ভিটামিন ‘এ’ চোখের স্বাভাবিক দৃষ্টিশক্তি ও শরীরের স্বাভাবিক বৃদ্ধি বজায় রাখে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করে।

ভিটামিন ‘এ’ এর অভাবে রাতকানাসহ চোখের অন্যান্য রোগ, শরীরের স্বাভাবিক বৃদ্ধি ব্যাহত হওয়া, রক্তশূন্যতা এমনকি শিশুর মৃত্যুও হতে পারে।

আরআর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত