শিরোনাম

বিছানায় অন্য পুরুষের সঙ্গে স্ত্রী, অতঃপর...

আন্তর্জাতিক ডেস্ক  |  ১৭:৪৯, জুলাই ৩১, ২০১৮

কর্মসূত্রে বাইরে থাকেন। কিন্তু গ্রামে স্ত্রী কী করছেন, তার সব খবরাখবরই পেতেন প্রতিবেশীদের কাছ থেকে। অনেকে বারবার সাবধানও করেছিলেন। কিন্তু স্ত্রীয়ের ভালোবাসায় এতটাই মজে ছিলেন, যে কারোর কথায় পাত্তা দেননি তিনি।

কিন্তু স্ত্রীকে চমকে দেওয়ার জন্য না বলেই বাড়িতে এসে তিনি যা দেখলেন, তাতে এক লহমায় গোটা পৃথিবীটাই যেন অন্ধকার হয়ে গিয়েছিল মালদার মানিকচকের রিন্টু শেখের সঙ্গে। তাঁরই ঘরে, তাঁরই বিছানায় অন্য পুরুষের সঙ্গে অন্তঃরঙ্গ মুহূর্তে স্ত্রী! ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মানিকচক থানার এনায়েতপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের মোহনা গ্রামে।

স্বাভাবিকভাবেই স্ত্রীর বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের প্রতিবাদ করেছিলেন রিন্টু। পরিণামে স্বামীকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে খুনের চেষ্টা করলেন স্ত্রী। বছর দশেক আগে মানিকচকের মোহনা গ্রামের রিন্টু শেখের সঙ্গে বিয়ে হয় সিমপা বিবির। বিয়ের পর পরিবারে আর্থিক অনটন শুরু হয়। ভিনরাজ্যে শ্রমিকের কাজ নিয়ে চলে যান রিন্টু।

এরপর থেকে যখনই রিন্টু বাড়িতে আসতেন, তখনই পাড়া প্রতিবেশীদের কাছ থেকে স্ত্রীর আচরণ সম্পর্কে নানান কথা শুনতেন তিনি। গ্রামেরই এক যুবকের সঙ্গে স্ত্রীর সম্পর্ক রয়েছে বলেও প্রতিবেশী সূত্রে খবর পান। বারবার বোঝানো সত্ত্বেও রিন্টুর কথায় কান দেননি সিমপা।

সোমবার (৩০ জুলাই) রাতে স্ত্রীকে না জানিয়েই বাড়ি ফেরেন রিন্টু। স্ত্রীকে ওই যুবকের সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলেন তিনি। এরপরই স্ত্রীয়ের সঙ্গে ঝামেলা হয় তাঁর। অভিযোগ, বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের প্রতিবাদ করতেই তাঁকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুনের চেষ্টা করেন সিমপা।

প্রতিবেশীদের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরেই রিন্টুর স্ত্রীর সঙ্গে ওই যুবকের সম্পর্ক ছিল। তা নিয়ে অনেকদিন ধরেই দুজনের মধ্যে গন্ডগোল ছিল। গ্রামের মানুষও বিষয়টিতে হস্তক্ষেপ করেন। কিন্তু কোনও লাভ হয়নি। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিস। সোমবার ঘটে যায় ভয়ঙ্কর ঘটনা। অভিযুক্ত স্ত্রীকে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত