শিরোনাম

সফল ব্যবসায়ী নাকি প্রতারক?

প্রিন্ট সংস্করণ॥ আমার সংবাদ ডেস্ক  |  ০১:৪৪, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৮

নীরব মোদি নামটি কেবল ভারত নয়, ভারত ছাপিয়ে এর হীরার অলঙ্কার হলিউডেও দ্যুতি ছড়িয়েছে। হলিউডের নামকরা অভিনেত্রী কেট উইন্সলেট আর নাওমি ওয়াটস ছাড়াও আরো অনেকে বহু মূল্যবান হীরা পরিধান করে নীরব মোদির নাম ছড়িয়েছেন। কিন্তু এখন এ নামটি ভারতে ভিন্ন কারণে আলোচিত। ভারতের ইতিহাসে অন্যতম বৃহৎ ব্যাংক জালিয়াতির অভিযোগে দেশটির আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থা নীরব মোদির বিরুদ্ধে তদন্ত করছে। খবর, বিবিসি।
নিউইয়র্কের ম্যাডিসন এভিনিউ এবং সিঙ্গাপুরের মেরিনা বে থেকে অস্কারের লাল গালিচায় দীর্ঘদিন ধরেই মোদির অলঙ্কারগুলো ধনী ও বিখ্যাতদের কাছে বেশ জনপ্রিয়। হীরা বণিকের ঘরে জন্ম নেওয়া ৪৭ বছর বয়স্ক মোদি ভারতের অন্যতম ধনী এবং বেন্টলি কার ও দামি ইতালিয়ান স্যুটের প্রতি তার দুর্বলতা সর্বজনবিদিত। তবে এখন তিনি গুরুতর প্রতারণার দায়ে অভিযুক্ত হয়ে আরো বেশি আলোচিত হয়েছেন। গত মাসে ভারতের দ্বিতীয় বৃহত্তম রাষ্ট্রীয় ব্যাংক পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক (পিএনবি) সেন্ট্রাল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (সিবি আই) কাছে অভিযোগ জানায় যে, মোদি ও তার পরিবার ব্যাংকটির ২৮০ কোটি রুপি (৪ কোটি ৩৮ লাখ ডলার) জালিয়াতির সঙ্গে জড়িত। গত বুধবার পিএনবি জানায়, মুম্বাইয়ের একটি শাখায়ই তারা প্রায় ১৮০ কোটি ডলার প্রতারণা চিহ্নিত করেছে। সংবাদ সংস্থা দ্য প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়ার (পিটিআই) এক প্রতিবেদনে জানা যায়, ব্যাংকটি মোদির বিরুদ্ধে সিবি আইয়ের কাছে নতুন করে অভিযোগ জানিয়েছে।
গত বৃহস্পতিবার এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট কর্মকর্তারা মোদির মুম্বাইয়ের বাসভবন এবং এ জুয়েলারের মালিকানায় থাকা অন্যান্য স্থাপনায় তল্লাশি চালিয়েছে। এ তল্লাশির পর কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে পিটিআই জানায়, দুটি জালিয়াতির মামলা শনাক্ত করার আগেই মোদি জানুয়ারির প্রথম দিকে দেশত্যাগ করেন। গত মাসে সুইজারল্যান্ডের দাভোসে অনুষ্ঠিত ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে নীরব মোদিকে ছবি তুলতে দেখা গেছে। অবশ্য দুই মোদির মধ্যে কোনো রকম আত্মীয়তার সম্পর্ক নেই। অভিযোগের ব্যাপারে নীরব মোদি কোনো মন্তব্য না করলেও ফায়ারস্টার ডায়ামন্ড জানিয়েছিল, আগের অভিযোগটির সঙ্গে কোম্পানির কোনো সম্পর্ক নেই। মোদির বাবা ও দাদা ছিলেন হীরা বণিক। তিনি বেলজিয়ামের অ্যানটুয়ার্পে বড় হয়েছেন এবং তরুণ বয়সে একজন সংগীত পরিচালক হওয়ার স্বপ্ন দেখতেন। তবে ১৯ বছর বয়সে ওয়ারটোন বিজনেস স্কুল থেকে ঝড়ে পড়ার পর তিনি ভারতে ফিরে আসেন এবং সেখানে হীরার অলঙ্কারের ব্যবসার সঙ্গে জড়িত হন। নীরব তার চাচা, বিখ্যাত উদ্যোক্তা, গীতাঞ্জলি ডায়ামন্ডসের প্রধান মেহুল চোকসির কাছ থেকে হীরা বাণিজ্যের খুঁটিনাটি জেনেছেন। উল্লেখ্য, চোকসির বিরুদ্ধেও বর্তমানে প্রতারণার তদন্ত চলছে। মোদি ১৯৯৯ সালে ফায়ারস্টোন প্রতিষ্ঠা করেন, যা এখন ফায়ারস্টার। এ ডায়ামন্ড জায়ান্টটির রাজস্ব এখন ২৩ কোটি ডলার। ২০১০ সালে তিনি নিজ নামে নীরব মোদি ব্র্যান্ডের সূচনা করেন। লন্ডন, বেইজিং, হংকংসহ বিশ্বের বিভিন্ন প্রধান শহরে এর শোরুম রয়েছে। নিউইয়র্কে ২০১৫ সালে একটি শোরুম খোলা হয়। উদ্বোধনীতে অন্যদের মধ্যে উপস্থিতি ছিলেন- নাওমি ওয়াটস। এর পরের বছর অস্কার অনুষ্ঠানে কেট উইন্সলেট নীরব মোদির ব্রেসলেট, রিং ও ইয়াররিং পরে হাজির হন। মোদির ব্যবসায়ী জীবনের অন্যতম সফলতা ছিল যখন তার একটি গোলকোন্ডা হীরার নেকলেস ক্রিস্টির এক নিলামে হংকংয়ে ৩০ লাখ ডলারে বিক্রি হয়। ফোর্বসের তথ্য অনুসারে, মোদির সম্পদের পরিমাণ ১৭৩ কোটি ডলার এবং তিনি ভারতের ধনীদের তালিকায় ৮৫ নম্বরে অবস্থান করছেন।
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত