শিরোনাম

চীনা তরুণের বুকে নারী স্তন!

০২:১৯, আগস্ট ১৩, ২০১৭

১৯ বছর বয়সী এক তরুণের বুক থেকে বড় আকারের স্তন কেটে বাদ দিয়েছেন চিকিৎসকেরা। তরুণের বুকে নারী স্তন! এই খবরে মানুষ অবাক হলেও অবাক হননি চিকিৎসকেরা। কারণ পৃথিবীতে এ ধরনের ঘটনা বেশ কয়েকটি রয়েছে। ওই তরুণ চীনের পূর্বাঞ্চলীয় ঝেজিয়াং প্রদেশের কাঙ্গান কাউন্টির বাসিন্দা।

চিকিৎসকেরা বলছেন, অতিরিক্ত পরিমাণে ফাস্টফুড খাওয়ার কারণেই এ ধরনের শরীরী পরিবর্তন হতে পারে। তাই ফাস্টফুড থেকে সাবধান থাকার পরামর্শ দিয়েছেন তাঁরা।

দ্য সান, মেট্রো, মিরর ও ডেইলি মেইল-এর প্রতিবেদনে বলা হয়, গত জুলাই মাসে চীনের ওয়েনঝউ সেন্ট্রাল হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে জিয়াও ফেং নামের ১৯ বছর বয়সী ওই তরুণের বড় হওয়া একটি স্তন কেটে ফেলা হয়। তিনি ফিরে পান পুরুষের গড়ন। তাঁর অস্ত্রোপচার করেন হাসপাতালের প্রধান চিকিৎসক পান ঝংলিয়াং।

প্রতিবেদনে বলা হয়, জিয়াও ফেং তাঁর ১৩ বছর বয়সে লক্ষ করেন, বুকের ডান স্তনটি ধীরে ধীরে বড় হয়ে যাচ্ছে। এর চিকিৎসার জন্য তাঁর মা-বাবা তাঁকে বিভিন্ন হাসপাতালে নিয়ে গেছেন। কিন্তু কোনো প্রতিকার পাননি। পরে জুলাই মাসে তাঁরা ওয়েনঝউ সেন্ট্রাল হাসপাতালে যান। সেখানে চিকিৎসক পান ঝংলিয়াং পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেন। পরে অস্ত্রোপচারে ডান স্তন কেটে বাদ দেন। জিয়াওয়ের বাঁ স্তন বড় হওয়ার কোনো লক্ষণ নেই। এ কারণে অস্ত্রোপচারের পর তিনি ফিরে পেয়েছেন তাঁর স্বাভাবিক পুরুষালি গড়ন। অস্ত্রোপচারের পাঁচ দিন পর তিনি বাড়ি ফিরে গেছেন।

চিকিৎসক বলেন, জিয়াও ফেংয়ের শরীরে হরমোনের ভারসাম্যজনিত তারতম্যের কারণে একটি স্তন বড় হয়ে গিয়েছিল। চিকিৎসাবিজ্ঞানের ভাষায় এটাকে বলা হয় গাইনেকোমাসটিয়া। এর কারণে পুরুষের শরীরে ধীরে ধীরে স্তন বড় হয়ে ওঠে। এই হাসপাতালে প্রতিবছর এই সমস্যা নিয়ে প্রায় শতাধিক তরুণ চিকিৎসা নিতে আসেন। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে তা কেটে বাদ দেওয়ার পর আর বড় হওয়ার কোনো আশঙ্কা নেই।

পান ঝংলিয়াং বলেন, অতিরিক্ত পরিমাণে ফাস্টফুড খাওয়ার কারণেই এ ধরনের শরীরী পরিবর্তন হতে পারে। এ কারণে চিকেন ফ্রাইসহ সব ধরনের ফাস্টফুড পুরুষদের এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসক পান।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত