শিরোনাম

সমকামিতায় লিপ্ত মালয়েশিয়ার অর্থমন্ত্রী আজমিন আলী!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক  |  ১৮:১৪, জুন ২৬, ২০১৯

আনোয়ার ইব্রাহিমের দল পার্টি কেদিলান রাকিয়াতের (পিকেআর) ডেপুটি প্রেসিডেন্ট এবং অর্থমন্ত্রী মোহাম্মদ আজমিন আলীর একটি কথিত সেক্স ভিডিও নিয়ে তোলপাড় চলছে। বিষয়টি নিয়ে মালয়েশিয়ার চায়ের কাপে ঝড় উঠছে। যেখানে সেখানে এ নিয়ে আলোচনা ও সমালোচনা চলছে।

ইন্টারনেটে একটি সমকামী ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে। তাতে অন্য একজন পুরুষের সঙ্গে তাকে সমকামিতায় লিপ্ত অবস্থায় দেখা যায়। কিন্তু এমন ভিডিওর কথা সরাসরি প্রত্যাখ্যান করেছেন আজমিন আলী।

তিনি বলেছেন, তাকে ধ্বংস করে দেয়ার জন্য কারসাজি করে ওই ভিডিও বানানো হয়েছে।

তার পক্ষ নিয়ে একই রকম কথা বলেছেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ। ওদিকে এরই মধ্যে ইন্টারনেটে বিদ্যুৎবেগে ছড়িয়ে পড়ছে ওই ভিডিও। খবর : অনলাইন দ্য স্ট্রেইটস টাইমস, স্টার অনলাইন ও রয়টার্স।

উদ্ভূত ঘটনার প্রেক্ষিতে তিনি একটি বিবৃতি দিয়ে বলেছেন, এটা আমার সুনাম ও চরিত্র হননের উদ্দেশ্য ছাড়া আর কিছু নয়। আমার রাজনৈতিক ক্যারিয়ারকে ধ্বংস করে দিতে এসব বানানো হয়েছে। এমন কাপুরুষোচিত ও হায়েনার মতো কর্মকান্ডের কাছে আমি মাথা নত করবো না।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হোয়াটসঅ্যাপে ছড়িয়ে পড়ে ওই ভিডিও। এতে দেখা যায় দু’জন পুরুষ সমকামিতায় লিপ্ত। এই ভিডিওটি হোয়াটসঅ্যাপে ছড়িয়ে দিতে একটি গ্রুপ সৃষ্টি করা হয়। তাতে যুক্ত করা হয় কিছু সাংবাদিক ও পিকেআর দলের নেতাদের কিছু সদস্যের নাম।

ভিডিওটি প্রকাশ করার আগে এমন গ্রুপ সৃষ্টি সুস্পষ্টত একটি পূর্বপরিকল্পিত রাজনৈতিক আক্রমণ বলে আখ্যায়িত করেছে দ্য স্ট্রেইটস টাইমস।

ওদিকে রোববার সরকারের একজন তরুণ সদস্য ও পিকেআর দলের সদস্য তার ফেসবুকে দেয়া পোস্টে স্বীকার করেছেন যে, ওই ভিডিওতে যে দু’জন ব্যক্তিকে দেখানো হচ্ছে তার একজন তিনি নিজে এবং অন্যজন আজমিন আলী।

সবকিছু মিলে যখন পরিস্থিতি ঘোলাটে হয়ে উঠেছে তখন মুখ খুললেন প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ। তিনি বললেন, অর্থ বিষয়ক মন্ত্রী আজমিন আলী এতটা স্টুপিড নন যে, তিনি সেক্স স্ক্যান্ডালে জড়িত হবেন।

মাহাথির বিশ্বাস, আমজিনের ভবিষ্যত ক্ষতিগ্রস্ত করতে সুনির্দিষ্ট মহলগুলো ইচ্ছাকৃতভাবে এসব করছে।

মাহাথিরের ভাষায়, আমি বিশ্বাস করি না যে, আজমিনের মতো ব্যক্তি ওই ভিডিওতে যে দৃশ্য দেখানো হচ্ছে, তাতে জড়িত থাকতে পারেন। কেউ তাকে ক্ষমতা থেকে নামানোর চেষ্টা করছে।

সোমবার এশিয়া ওয়েল অ্যা- গ্যাস বিষয়ক এক কনফারেন্সে যোগ দেয়ার পর সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

মাহাথির আরো বলেন, প্রযুক্তির কল্যাণে ভুয়া ছবি ব্যবহার করে এমন ছবি যে কেউ তৈরি করতে পারে।

এসময় তার কাছে জানতে চাওয়া হয় আজমিনের কি পদত্যাগ করা উচিত কিনা?

জবাবে মাহাথির বলেন, কোনো দরকার নেই।

এমএআই

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত