শিরোনাম

ভালোবাসার জন্য সিংহাসন ছাড়লেন রাজা

জিয়া উল ইসলাম  |  ১৪:০৮, জানুয়ারি ০৯, ২০১৯

প্রেম-ভালোবাসার জন্য কত মানুষ ঘর ছেড়েছে। চলে গেছে নিজ দেশ থেকে অন্য দেশে। রাজ্য-সিংহাসন সবই চলে গিয়েছে এই ভালোবাসার জন্য। যুগে যুগে এই ভালোবাসার জন্য ধ্বংস হয়েছে নগরী জনপথ। ঐতিহাসিক ট্রয় নগরী ধ্বংসে পিছনে দায়ী এই ভালোবাসা। কারণ গ্রিসের স্পার্টা রাজ্যের রাজা মেনেলাস-এর স্ত্রী হেলেন প্রেমে পড়ে যান ট্রয় নগরীর রাজা প্রিয়াম এবং রাণীর হেকবার আদরের রাজপুত্র প্যারিসের।

মেনেলাস-এর স্ত্রী হেলেন প্যারিসকে এতোটাই ভালোবেসে ফেলেছিল যে, স্বামী মেনেলাসকে আর স্পার্টার রাজপ্রাসাদ ছেড়ে প্যারিস-এর হাত ধরে পালিয়ে আসেন ট্রয় নগরীতে। আর এতেই হেলেনের স্বামী মেনেলাস তার সমস্ত শক্তি নিয়ে ট্রয়ের বিরুদ্ধে যুদ্ধে নেমে পড়েন। প্রায় দশ বছর স্থায়ী ছিল সেই যুদ্ধ। এর ফলস্বরূপ ধ্বংস হয়ে গিয়েছিল ঐতিহাসিক ট্রয় নগরী! বর্তমানে তেমন সেই রাজ্য আর সিংহাসন নেই তবে প্রেম ভালোবাসা এখনো আছে।

২৫ বছরের রুশ সুন্দরী। চীন ও থাইল্যান্ডে নিয়মিত মডেলিং করেন। নাম ওকসানা ভোয়েভোদিনা। ২০১৫ সালে মিস মস্কো খেতাব জিতে নিয়েছিলেন এই রুশ সুন্দরী। এই সুন্দরী প্রেমে পড়ে যান ৪৯ বছর বয়সি মালয়েশিয়ার রাজা টেংকু মহাম্মাদ ফারিস পেত্রা ইবনি টেংকু ইসমাইল পেত্রা। তিনি ২০১৬ সাল থেকে মালয়েশিয়ার সিংহাসনে রয়েছেন। মালয়েশিয়ার সংবিধান অনুযায়ী, পালা করে সুলতান হওয়ার সুযোগ পান ৯ রাজ্যের শাসক। তাদের প্রত্যেকের মেয়াদ থাকে ৫ বছর করে। ২০১৬ সালের ১৩ ডিসেম্বর অন্য শাসকদের সম্মতিতে দেশের কনিষ্ঠতম সুলতান অভিষিক্ত হন কেলান্তানের শাসক পঞ্চম মহম্মাদ। ২০২১ পর্যন্ত ওই পদে থাকার কথা ছিল তার।

কিন্তু না তার জীবনে প্রেম-ভালোবাসা দেখা দেয়। রুশ সন্দুরীর প্রেমে হাবুডুবু খান তিনি। আর তাইতো দুই মাস আগে চিকিৎসার বাহানায় দেশ ছেড়ে বিদেশে পাড়ি দেন ৪৯ বছর বয়সি পঞ্চম মহম্মাদ। ভালোবাসার টানে বিয়ে করেন ওকসানা ভোভোদিনাকে।

গত মাসে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে ওকসানা ভোভোদিনার সঙ্গে পঞ্চম মহম্মাদের গোপন বিবাহের খবর ফলাও করে ছাপা হয়। সামনে আসে বিয়ের ছবিও। জানা যায়, ২০১৮ সালের ২২ নভেম্বর মস্কোর বরভিকায় একটি কনসার্ট হলে গোপনে বিয়ে সারেন তারা।

তখন ব্রিটিশ পত্রিকা ডেইলি মেইলকে ওকসানা জানিয়েছিলেন, আমি মনে করি পুরুষদের উচিৎ পরিবারের কর্তার ভূমিকা পালন করা এবং নারীর চেয়ে কিছুতেই তার আয় কম হওয়া উচিৎ নয়। তাদের বিয়েতে কোনও মদ জাতীয় পানীয় ছিল না এবং খাবার ছিল সব হালাল।

টুইটারে হিজাব পরে একটি ছবিও পোস্ট করেন ওকসানা। বিয়ে উপলক্ষে ২০১৮ সালে ১৬ এপ্রিল মুসলিম ধর্মে ধর্মান্তরিত হন ওকসানা। তবে সংবাদমাধ্যম তাদের কোথায় প্রথম দেখা হয়েছিল তা জানাতে পারেনি এবং তাদের এই বিয়ের খরব মালয়েশিয়ার সরকারের তরফে এখনো পর্যন্ত নিশ্চিত করা হয়নি। তবে এই বিয়ে নিয়ে অনেক জল্পনা শুরু হয়। পদত্যাগে দাবি করা হয় পঞ্চম মহম্মাদের। তাদের পোশাক নিয়েও সমালোচনা হয়।

অবশেষে সব কল্পনার অবসান ঘটিয়ে সত্য প্রমাণিত হলো সিংহাসন ছাড়লেন মালয়েশিয়ার সুলতান পঞ্চম মহম্মাদ। রোববার পদত্যাগপত্র জমা দেন তিনি আর তা গৃহীতও হয়। ফলে মালয়েশিয়ায় এই প্রথম মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে কোনো শাসক পদত্যাগ করলেন। মূলত তিনি ভালোবাসার জন্য সিংহাসন ছাড়লেন।

রাজ প্রাসাদের তরফে একটি বিবৃতি জারি করে হয়েছে পদত্যাগ করেছেন দেশের পঞ্চদশ সুলতান। আনুষ্ঠানিকভাবে অন্য শাসকদের নিজের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দিয়েছেন তিনি। সহযোগিতার জন্য দেশের প্রধানমন্ত্রী ও যুক্তরাষ্ট্রীয় সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। সুলতান হওয়ার পাশাপাশি দেশে সেনাবাহিনীরও প্রধান তিনি। তাই দেশবাসীকে ঐক্য বজায় রাখার আর্জি জানিয়েছেন তিনি। আর্জি জানিয়েছেন শান্তি ও সমন্বয় বজায় রাখার।

জয় হলো ভালোবাসার। হয়তো রুশ সুন্দরী ওকসানা ও মালয়েশিয়ার রাজা পঞ্চম মহম্মাদের প্রেম ইতিহাসে জায়গা করে নেবে কোনো একদিন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত