শিরোনাম

বুধিরপাড়া বিল এখন বিনোদন কেন্দ্র

মো. সানোয়ার হোসেন, মির্জাপুর (টাঙ্গাইল)  |  ১৪:১৫, জুলাই ২৭, ২০১৯

দু’পাশে নতুন পানি মাঝখানে গ্রামের মেঠোপথ সবমিলিয়ে প্রকৃতির সৌন্দর্য্যে আনন্দ বিনোদন কেন্দ্রের নাম টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার ৯নং বহুরিয়া ইউনিয়নের বুধিরপাড়া বিল। শহরের কোলাহল থেকে বেরিয়ে প্রকৃতির সাথে একটু সময় কাটাতে নানা পেশার মানুষ এখন এই স্থানে ছুটে আসেন।

উপজেলা সদরে কোনো বিনোদন কেন্দ্র না থাকায় এই জায়গাটি এখন দর্শনার্থীদের কাছে আনন্দ বিনোদনের কেন্দ্র হিসেবেই পরিচিতি পাচ্ছে। নৌপথে প্রতিদিন বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পিকনিকে আসেন নানা ধরণের মানুষ।

সরজমিন ঘুরে দেখা যায়, কিশোর থেকে শুরু করে নানা পেশার মানুষ এই স্থানটিতে ঘুরতে আসেন। কেউ পরিবার, কেউবা দম্পত্তি আবার বন্ধু-বান্ধব সকলেই মিলে এসে প্রকৃতির মাঝে নিজেকে উজার করে দেন। অধিকাংশ দর্শনার্থীদেরই ছবি বা সেলফি তোলতে দেখা গেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও এই জায়গাটির নাম ছড়িয়ে পড়েছে।

স্থানীয় ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক শেখ জসিম উদ্দিন বলেন, আমাদের এলাকাটি অত্যন্ত চমৎকার, আমরা নিজেরাও প্রায় সময় ঘুরতে আসি। মির্জাপুরে তেমন কোনো বিনোদন কেন্দ্র না থাকায় এটি এখন সকলের মুখে মুখে। বসার কোনো ব্যবস্থা থাকলে আরও ভালো হতো।

মির্জাপুর সদর থেকে প্রায় ৪ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এই বুধিরপাড়া বিল। যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো থাকায় এই স্থানটিতে স্থানীয়সহ দুর-দুরান্ত থেকে প্রতিদিন শত শত দর্শনার্থী ঘুরতে আসেন। আবার বিকেলে নৌকা নিয়ে ঘুরতে দেখা যায় শত শত দর্শনার্থীদের। বিনোদন কেন্দ্রের বিশেষত্ব হলো নৌকা ভ্রমণ এবং ছবি তোলা। লৌহজং নদী ও পাশ্ববর্তী ধামরাইসহ নৌপথে এই স্থানটিতে পিকনিকে আসার ব্যবস্থা খুবই ভালো।

আগামী পবিত্র ঈদুল আযহাতে স্থানটিতে দর্শনার্থীদের ভিড় লক্ষণীয় হতে পারে বলে জানান বহুরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস সামাদ মিয়া।

এ ব্যাপারে ইউনিয়নের বাসিন্দা হংকং আ.লীগের সভাপতি ও উপজেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি আবুল কালাম আজাদ লিটনের সাথে যোগাযোগে তিনি জানান, আমাদের এই বুধিরপাড়া বিলটি ইতিমধ্যে সকলের কাছে বেশ পরিচিতি পেয়েছে।

স্থানটিতে বসার কোনো সুব্যবস্থা না থাকলেও দর্শনার্থীদের কথা চিন্তা করে বসার ব্যবস্থা করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করা হবে।

এমআর

 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত