শিরোনাম

বিশেষ নয় সাধারণই হচ্ছে ৪১তম বিসিএস

প্রিন্ট সংস্করণ॥নিজস্ব প্রতিবেদক  |  ০৩:৩৯, মে ২৩, ২০১৯

দেশের সরকারি কলেজগুলোতে শিক্ষক সংকট দীর্ঘদিনের। এই সংকট নিরসনের জন্য ৪১তম বিসিএসকে বিশেষ করে শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে বলে একাধিকবার গণমাধ্যমে জানিয়েছিল বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। কিন্তু ৪১তম বিসিএস বিশেষ নয়, সাধারণই হচ্ছে। পিএসসি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, ইতোমধ্যে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ৪১তম বিসিএসের মাধ্যমে ক্যাডার নিয়োগের চাহিদা জানিয়ে পিএসসিকে চিঠি দিয়েছে। সেই চিঠির আলোকে শিগগিরই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে। ৪১তম বিসিএসের মাধ্যমে দুই হাজার ১৩৫ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে। বিভিন্ন ক্যাডারের শূন্য পদ অনুযায়ী এ সংখ্যা নির্ধারণ করা হয়েছে।

গত ৯ মে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে পিএসসির কাছে শূন্য পদের সংখ্যা জানিয়ে ৪১তম বিসিএসের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের অনুরোধ জানায়। পিএসসির চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ সাদিক বিষয়টি সম্পর্কে গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা ৪১তম বিসিএসের চাহিদা পেয়েছি। হাতের কিছু কাজ শেষে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে।

এর আগে ৪১তম বিসিএস বিশেষ হওয়ার বিষয়ে পিএসসির চেয়ারম্যান বলেছিলেন, ৩৮তম সাধারণ বিসিএসের লিখিত পরীক্ষা চলছে। স্বাস্থ্য ক্যাডারের জন্য আয়োজিত ৩৯তম বিশেষ বিসিএস পরীক্ষা শেষ হয়েছে। বর্তমানে ফলাফল প্রকাশের কাজ শুরু হয়েছে।

৪০তম বিসিএস পরীক্ষার চাহিদা ক্যাডার পদের চাহিদা পাওয়া গেছে। আগামী সেপ্টেম্বর বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হতে পারে। এ সময়ের মধ্যে শিক্ষা ক্যাডারে বিশেষ বিসিএসের আইন সংশোধন হলে ৪১তম বিশেষ বিসিএস পরীক্ষার প্রস্তুতি শুরু করা হতে পারে।

এদিকে ৩৮তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষা গত ৯ মাস আগে শেষ হলেও এখন পর্যন্ত এর ফল প্রকাশ করা হয়নি। এ ছাড়া ৪০তম বিসিএসের প্রিলিমিনারির ফলও প্রকাশের অপেক্ষায় রয়েছে। তা ছাড়া দুটি বিসিএসের ননক্যাডারের সুপারিশও চূড়ান্ত হয়নি।

এ অবস্থায় বিভিন্ন ক্যাডারের শূন্য পদের সংখ্যা জানিয়ে ৪১তম বিসিএস আয়োজনের অনুরোধ জানিয়েছে সরকার। বিভিন্ন বিসিএসের ঝামেলা সামলে কবে নাগাদ নতুন বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা যাবে তা জানাতে পারেননি পাবলিক সার্ভিস কমিশনের (পিএসসি) কর্মকর্তারা।

জানা যায়, ৪১তম বিসিএসে প্রশাসন ক্যাডারে নিয়োগ করা হবে ৩২৩ জনকে। পররাষ্ট্র ক্যাডারের সহকারী সচিব পদে ২৫ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে। পুলিশ ক্যাডারে সহকারী পুলিশ সুপার পদে নিয়োগ দেয়া হবে ১০০ জনকে।

বিসিএস আনসার ক্যাডারের সহকারী পরিচালক, সহকারী জেলা কমান্ড্যান্ট ও ব্যাটালিয়ন উপ-অধিনায়ক পদে শূন্য পদ ২৩টি। নিরীক্ষা ও হিসাব ক্যাডারের সহকারী মহাহিসাব রক্ষকের শূন্য পদ ২৫টি। কর ক্যাডারেও নিয়োগ দেয়া হবে ৬০ জনকে। শুল্ক ও আবগারি ক্যাডারে সহকারী কমিশনারের শূন্য পদ ২৩টি। সমবায় ক্যাডারের সহকারী নিবন্ধকের পদ আটটি।

পরিসংখ্যান কর্মকর্তা পদে ১২ জন, রেলওয়ে পরিবহন ও বাণিজ্যক ক্যাডারের সহকারী ট্রাফিক সুপারিনটেনডেন্ট পদে একজন, রেলওয়ে প্রকৌশল ক্যাডারের যন্ত্র প্রকৌশলী ও সরঞ্জাম নিয়ন্ত্রক পদে পাঁচজন, সড়ক ও জনপথ ক্যাডারের সহকারী প্রকৌশলী সিভিল ও যান্ত্রিক পদে ২৩ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে।

এ ছাড়া তথ্য ক্যাডারের সহকারী পরিচালক, তথ্য অফিসার, গবেষণা কর্মকর্তা, সহকারী পরিচালক (অনুষ্ঠান), বার্তা নিয়ন্ত্রক ও বেতার প্রকৌশলী পদে ৪৭ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল ক্যাডারের সহকারী প্রকৌশলী পদ ৩৬টি, বন ক্যাডারের সহকারী বন সংরক্ষকের ২০টি পদ শূন্য।

সরকারি সাধারণ কলেজের জন্য সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারের বিভিন্ন বিষয়ের অধ্যাপক পদে ৮৯২ জন, শিক্ষক প্রশিক্ষণ কলেজের জন্য সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারের প্রভাষক পদে ১৩ জন, কারিগরি শিক্ষা ক্যাডারের প্রভাষক পদে ১০ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে।

ডাক ক্যাডারের সহকারী পোস্ট মাস্টার জেনারেল পদে দুইজন, মৎস্য ক্যাডারের টেকনোলজিস্ট, চাষবিদ, বায়োলজিস্ট, বায়োমেট্রিশিয়ান, ফিশারিজ টেকনোলজিস্ট, মাইক্রো বায়োলজিস্ট ও উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা পদে ১৫ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে।

পশুসম্পদ ক্যাডারের বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা, থানা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা, হাঁস-মুরগি উন্নয়ন কর্মকর্তা, হাঁস-মুরগি সমপ্রসারণ কর্মকর্তা ও চিড়িয়াখানা কর্মকর্তা পদে ৭৬ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে।

বিসিএস কৃষি ক্যাডারের কৃষি সমপ্রসারণ কর্মকর্তা ও বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তার ১৮৯টি পদ শূন্য। বাণিজ্য ক্যাডারের সহকারী নিয়ন্ত্রকের চারটি, স্বাস্থ্য ক্যাডারের সহকারী সার্জন, ডেন্টাল সার্জনের ১৪০টি পদে জনবল নিয়োগ করা হবে।

পরিবার পরিকল্পনা ক্যাডারের পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা পদে চারজন, খাদ্য ক্যাডারের সহকারী খাদ্য নিয়ন্ত্রক, সহকারী রক্ষণ প্রকৌশলী পদে আটজন এবং গণপূর্ত ক্যাডারের সহকারী প্রকৌশলী সিভিল এবং ইএম পদে ৫১ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত