শিরোনাম

উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় বিদ্যুৎ উৎপাদন বাড়াতে হবে

প্রিন্ট সংস্করণ॥অর্থনৈতিক প্রতিবেদক  |  ১১:৫২, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৮

উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষার জন্য আমাদের দেশে বিদ্যুতের উৎপাদন আরো বাড়াতে হবে বলে জানিয়েছেন ডরিন পাওয়ার জেনারেশনের এবং সিষ্টেমস লিমিটেডের ব্যাবস্থাপনা পরিচালক তাজিব আলম সিদ্দিক। এবং এই বিদ্যুতের উন্নয়নের লক্ষে সরকারও কাজ করে যাচ্ছে বলে তিনি জানান। গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর ট্রাষ্ট মিলনায়তনে কোম্পানিটির ১১তম বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএম) তিনি এসব কথা বলেন। তাজিব আলম সিদ্দিক বলেন, ডরিন পাওয়ার বাংলাদেশের বৃহত্তম বেসরকারি বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান। যার ২০০৮ সালের নভেম্বরে বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু হয়েছে এবং সফলভাবে এক দশকের বাণিজ্যিক অপারেশন সম্পন্ন করেছে। ২০১০ সালের মাঝামাঝি সময়ে প্রতিটি ৫৫ মেগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন নর্দার্ণ ও সাউদার্ন বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বাণিজ্যিক অপারেশন শুরু হয়। আর ২০১৯ সালের জুলাইয়ের মধ্যে চাঁদপুর বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু করা সম্ভব হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ডরিন পাওয়ারের ৬৬৬ কোটি ৫ লাখ টাকার আয় হয়েছে। যা পূর্ববর্তী বছরের তুলনায় ২৯.৩১ শতাংশ বেশি। অপরদিকে বিশ্ব বাজারে জ্বালানী তেলের মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় বিক্রয় ব্যয় বেড়েছে ৩৮.৪৩ শতাংশ। এর ফলে আমাদের কোম্পানির মোট মুনাফা বৃদ্ধি পেয়েছে মাত্র ৩.৯০ শতাংশ। কিন্ত সাধারণ ও প্রশাসনিক ব্যয় এবং অর্থায়ন ব্যয় হ্রাসের কারণে নীট মুনাফা ১২.৮৫ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে ৮৩ কোটি ১৭ লাখ টাকায় উন্নিত হয়েছে। এজিএমে পর্ষদের ঘোষিত ১৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ এবং ১০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ শেয়ারহোল্ডারদের সম্মতিক্রমে অনুমোদিত হয়েছে। এছাড়া এজিএমে আরো ছয়টি আলোচ্যসূচি (এজেন্ডা) শেয়ারহোল্ডারদের সম্মতিক্রমে অনুমোদিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কোম্পানিটির স্বতন্ত্র পরিচালক মাহতাব বিন-আহমদ, পরিচালক আনজাবিন আলম সিদ্দিক, সচিব মাসুদুর রহমান ভূইয়া।
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত