শিরোনাম

রোজায় পণ্যের দাম বাড়বে না : বাণিজ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক  |  ১৭:১৩, এপ্রিল ১৮, ২০১৯

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, আসন্ন রমজানে নিত্যপণ্যের দাম বাড়বে না। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে বাজার মনিটরিং করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকেও বাজার মনিটরিং চলছে। কাজেই আশা করছি, রমজানে বাজার স্থিতিশীল থাকবে। নিত্যপণ্যের দাম বাড়বে না।’

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) দুপুরে সচিবালয়ে চাল ব্যবসায়ীদের সংগঠন-অটো মেজর অ্যান্ড হাসকিং মিল ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আবদুর রশিদ (মিনিকেট রশিদ) ও সাধারণ সম্পাদক লায়েক আলীর নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদলের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

টিপু মুনশি বলেন, রোজায় নিত্যপণ্যের দাম বাড়বে না ‘সবকিছুর পর্যাপ্ত মজুত আছে। বাজারে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মজুত, সরবরাহ ও মূল্য স্বাভাবিক রয়েছে। আসন্ন রমজান মাসে কোনো পণ্যের দাম বৃদ্ধি পাবে না এবং সরবরাহে ঘাটতি থাকবে না। চাহিদার তুলনার অনেক বেশি পণ্য মজুত রয়েছে। রাস্তায় যেন পণ্য পরিবহনের ট্রাকে চাঁদাবাজি না হয়, সে ব্যাপারে আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি।’

এসময় বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশির কাছে চাল রফতানির প্রস্তাব দেয় চাল ব্যবসায়ীদের সংগঠনটি। তাদের পক্ষ থেকে বলা হয়, এই মুহূর্তে বাংলাদেশে চাহিদার অতিরিক্ত চাল উদ্বৃত্ত রয়েছে। রফতানি করা না গেলে কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত হবে। তাই এই মুহূর্তে চাল রফতানির অনুমতি প্রয়োজন।

এমন প্রস্তাবের বিষয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা তাদের দাবি শুনেছি। এগুলো পরীক্ষা- নিরীক্ষা করে দেখবো। কৃষি ও খাদ্য মন্ত্রণালয়ে খোঁজ নিয়ে জানবো, আসলেই চাল উদ্বৃত্ত রয়েছে কিনা। তারা যে তথ্য দিয়েছে তা সঠিক কিনা। তারপরই এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবো।’

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আমাদের সকল পণ্যের দাম গত বছরের তুলনায় কম রয়েছে। তবে চিনির উৎপাদন খরচ বাড়ায় কেজিতে এক টাকা দাম বেড়েছে। এছাড়া ছোলা, চাল, ডাল, তেল ও আলুর দাম স্বাভাবিক রয়েছে। আলু আমাদের উৎবৃত্ত রয়েছে। যা রফতানি করা যায় কিন্তু চাহিদা না থাকায় করা যাচ্ছে না।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত