শিরোনাম

বৃটিশ মালিকানাধীন চা বাগানে দুই পক্ষের সংঘর্ষ, নিহত ১

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি  |  ১৭:০৬, জানুয়ারি ১২, ২০১৯

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে বৃটিশ মালিকানাধীন চা বাগানে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট সংঘর্ষে মুনিবজিত রবিদাস (৬০) নামীয় এক বৃদ্ধ চা শ্রমিক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় দু’পক্ষের আরও ১০ জন আহত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার (১১ জানুয়ারি) সকাল ১১টায় উপজেলার শমশেরনগর ইউনিয়নস্থ বৃটিশ মালিকানাধীন ডানকান ব্রাদার্সের শমশেরনগর চা বাগান এর ফাঁড়ি দেওছড়া চা বাগানের মাঠের পাশে মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটে।

চা বাগান সূত্রে জানা যায়, রাজমিস্ত্রীর কাজ ও টাকা নিয়ে গত বৃহস্পতিবার রাতে দু’পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে পরদিন গতকাল (শুক্রবার) সকালে মুনিবজিত রবিদাস ও তার ভাই চন্দন রবিদাসের নেতৃত্বে একপক্ষ এবং গরিবা রবিদাস ও তুলসি রবিদাসসহ অন্যান্যরা অপরপক্ষে অবস্থান নিয়ে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে দু’পক্ষের মাঝে সংঘর্ষ বাঁধে। এতে মুনিবজিত রবিদাশ পক্ষের চন্দন রবিদাশ (৫৫), দিলীপ রবিদাশ (৩৫), বাবুল রবিদাশ (২০), লক্ষী রবিদাশ (৪৫), রাম গোপাল রবিদাশ (২৫) আহত হন।

অপরদিকে গরিবা রবিদাশ পক্ষের গরিবা রবিদাশ (৬৫), তুলসী রবিদাশ (২৫), কার্ত্তিক রবিদাশ (২০), সত্য নারায়ণ (৩৫) আহন হন। গুরুতর আহতবস্থায় মুনিবজিত রবিদাসকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকল দুপুরে মারা যান। আহতদের শমশেরনগর ক্যামেলিয়া ডানকান ফাউন্ডেশন হাসপাতাল, কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এই ঘটনায় দেওছড়া চা বাগানে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠলে জেলা পুলিশ প্রশাসনের শ্রীমঙ্গল সার্কেলের এএসপি আশফাকুজ্জামান, কমলগঞ্জ থানার ওসি আরিফুর রহমান ও শমশেরনগর ফাঁড়ির ইনচার্জ অরুপ কুমার চৌধুরী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

আসলে এসব ঘটনার নেপথ্যে মাদকাশক্তির বিষয়টি সম্পৃক্ত রয়েছে জানিয়ে চা বাগানের জনৈক শ্রমিক নেতা বলেন, ঘটনার দিন মুনিবজিত রবিদাশ গংরা মিলে গরিবা রবিদাশ এর বাড়িতে গিয়ে হামলা চালিয়ে গরিবা রবিদাশের মাথা ফাটিয়ে দেয়। ফলে পরিস্থিতি ভয়াবহ রুপ নেয় এবং অপ্রীতিকর ঘটনাটি ঘটে।

বিষয়টির ব্যাপারে আজ শনিবার (১২জানুয়ারি) বেলা প্রায় দুইটায় শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ অরুপ কুমার চৌধুরীর মোবাইল ফোনে কল দিয়ে রিং বাজলেও তাকে পাওয়া যায়নি। তবে কমলগঞ্জ থানার ডিউটি অফিসার জানান, উক্ত ঘটনায় সত্য নারায়ন (৩৫), সাগর রবিদাস (৩২) নামীয় দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয় এবং গতকাল রাত ৯টা ৪৫ মিনিটে নিহতের ছেলে বাবুল রবিদাশ বাদী হয়ে ৮জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ১০, তারিখ ১১.১.২০১৯।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত