শিরোনাম

চকরিয়ায় ছাত্রলীগ নেতা হত্যার ঘটনায় মামলা, আটক ২

মোহাম্মদ উল্লাহ, চকরিয়া(কক্সবাজার)  |  ২৩:১৮, মে ২৬, ২০১৯

কক্সবাজারের চকরিয়ায় প্রেমের সম্পর্কের জের ধরে আনাস ইব্রাহীম (১৭) নামের এক ছাত্রলীগ নেতাকে হত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনার পর পরপরই জনতার সহায়তায় পুলিশ ইলিয়াছ উদ্দিন ও ইমরান উদ্দিন সাকিল নামের দুই তরুণকে আটক করেছে।

শনিবার (২৫মে) রাতে মারা যাওয়ার পর আনাসের লাশ নিয়ে খুনিদের ফাঁসির দাবীতে এলাকাবাসী ও ছাত্রলীগের কর্মীরা থানা ঘেরাও করেন। আনাছের পিতা হাফেজ মৌলনা নেছার আহমদ বাদী হয়ে ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে।

এলাকার লোকজন জানায়, দেড়মাস আগে প্রেমঘটিত ঘটনায় দু’পক্ষের মধ্যে মনোমালিন্য হয়। এর কয়েকদিন পর ক্রিকেট খেলায় প্রেমের জের ধরে দুপক্ষের মধ্যে হাতহাতি ও পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এরপরও আরো দুইবার সংঘর্ষ হয় দুপক্ষের মধ্যে। দীর্ঘ এক মাসের বেশী সময় তাদের আর দেখা সাক্ষাত হয়নি।

শনিবার রাত সাড়ে সাড়ে ৯টার দিকে চকরিয়া পৌরসভার আনোয়ার শপিং কমপ্লেক্সে ভেতরে দেখা হয় বিনামারা ও সালামত মাস্টার পাড়ার বিরোধে জড়ানো তরুণদের। ওই সময় ওয়েষ্টার্ন প্লাজার সামনে সালামত মাষ্টার পাড়ার তরুণরা বিনামারা পাড়ার দুই তরুণের পিঠে ও পেটে ক্ষুর দিয়ে আঘাত করে।

এতে পেটে আঘাত প্রাপ্ত আনাস ইব্রাহীমের ভূঁড়ি বের হয়ে যায়। আহত দুইজনকে সহপার্টিরা দ্রুত চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে রাত সাড়ে ১১টার দিকে আমিরাবাদ পৌছলে আনাস মারা যায়।

নিহত আনাস বিনামারার হাফেজ মাওলানা নেছার উদ্দিনের ছেলে ও চকরিয়া কেন্দ্রীয় উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবার এসএসসি পাস করেছে। একই এলাকার আহত এসএসসি পাস করা মো. আবদুল্লাকে চমেক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

ঘটনার পরপরই জনতার সহায়তায় পুলিশ ইলিয়াছ উদ্দিন ও ইমরান উদ্দিন সাকিল নামের দুই তরুণকে আটক করেছে। তাদের কাছ থেকে একটি ক্ষুর উদ্ধার হয়। এই হামলার ঘটনায় আরো ৪জন জড়িত রয়েছে বলে পুলিশ তথ্য পেয়েছে।

চকরিয়া থানার ওসি হাবিবুর রহমান বলেন, আহতদের মধ্যে আনাস মারা গেছে জানার পর হামলায় জড়িত পলাতকদের ধরতে পুলিশের দুটি টিমকে মাঠে নামানো হয়েছে। এ ঘটনায় হত্যা মামলা হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত