শিরোনাম

পলাশে প্রবাসীর বাড়ীতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি, ৯ লাখ টাকার মালামাল লুট

তারেক পাঠান, পলাশ (নরসিংদী) প্রতিনিধি  |  ১৯:২৬, এপ্রিল ১৫, ২০১৯

নরসিংদীর পলাশে নববর্ষের প্রথম দিনে প্রবাসীর বাড়ীতে আধা ঘন্টা তান্ডব চালিয়ে দুর্ধর্ষ ডাকাতি করে ৯ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে এক দল মুখোশধারী ডাকাত দল।

বাড়ির তিন বছরের ছোট বাচ্চার গলায় ছুড়ি ধরে ও পরিবারের সবাইকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে লুট করে নিয়ে গেছে ৫ লক্ষাধিক টাকা মূলের একটি ডায়মন্ডের নেকলেস, ৬ ভরিস্বর্ণালংকার, নগদ ১ লক্ষ ৬৪ হাজার টাকাসহ কম বেশি ৯ লাখ টাকার মালামাল।

রোববার মধ্যরাতে উপজেলার গজারিয়া ইউনিয়নের ইছাখালি গ্রামের আবুল হোসেনের কুয়ের প্রবাসী ছেলে আশ্ররাফুল ইসলাম সুমনের বাড়িতে এ দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এই ডাকাতির খবর ছড়িয়ে পড়ার পর গ্রামের সাধারন মানুষের মধ্যে ডাকাত ভয় ,আতকং,উৎকন্ঠার উদ্বেগ দেখা দিয়েছে।

বাড়ির লোক জন জানান ,মধ্য রাতে ১২/১৪ জন ডাকাত দল প্রথমে বাড়ির কলাপসিবল গেইটের তালা ভেঙ্গে বারান্দায় ঢুকে। পরে প্রবাসির বাবা আবুল হোসেনের দরজার সিটকিনি ভেঙ্গে ঘরের ভেতরে প্রবেশ করে তার গলায় ছুরি ধরে তাকে জিম্মি করে। পরে তার কুয়েত প্রবাসি ছেলে আশ্ররাফুল ইসলাম সুমন ও অপু ইসলামকে ডাকতে বলে।

কুয়েত প্রবাসি আশ্ররাফুল ইসলাম সুমন ও অপু ইসলাম তাদের বাবার শব্দ শুনে ঘরের দরজা খুলে বের হতে চাইলে ডাকাতরা তাদেরকেও অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে হাত পা বেধে ফেলে।

এসময় বাড়ির গৃহবধু ও গৃহনারা চিৎকার করতে চাইলে প্রবাসি আশ্ররাফুল ইসলামের তিন বছরের ছোট বাচ্চা সালমানের গলায় ছুড়ি ধরে তাকে হত্যার ভয় দেখিয়ে শব্দ করতে মানা করে।

পরে ডাকাতরা বাড়ির লোক-জনের কাছে আলমারির চাবি দাবি করলে প্রাণের ভয়ে তারা চাবি দিয়ে দেয়। আলমারিতে থাকা ৫ লক্ষাধিক টাকা মূলের একটি ডায়মন্ডের নেকলেস, ৫/৬ ভরিস্বর্ণালংকার, একটি আই ফোন মোবাইলসহ ৩টি মোবাইল ফোন, নগদ ১ লক্ষ ৬৪ হাজার টাকাসহ প্রায় ৯ লাখ টাকার মালামাল লুন্ঠন করে নিয়ে যায়।

এ ঘটনার পর সোমবার সকালে নরসিংদীর অতিরিক্তি পুলিশ সুপার জাকির হাসান,পলাশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মকবুল হোসেন মোল্লা,ওসি তদন্ত গোলাম মোস্তফা ও ইউপি চেয়ারম্যান ঘটনারস্থল পরিদর্শন করে। ওসি মকবুল হোসেন মোল্লা বলেন,ডাকাতির ঘটনায় থানায় মামলা প্রক্রিয়াধিন রয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত