শিরোনাম

‘আমি নিজেকে সব চরিত্রের অভিনেত্রী মনে করি’

প্রিন্ট সংস্করণ  |  ০১:১৫, অক্টোবর ১৫, ২০১৮

টিভি নাটকের একজন জনপ্রিয় নির্মাতা মাঝে বলেছিলেন, নুসরাত ইমরোজ তিশার পরের প্রজন্মের জনপ্রিয় অভিনেত্রীর নাম মেহজাবিন চৌধুরী। এই লাক্স সুপারস্টার এখন অনেক বাছ-বিচার করে কাজ করছেন। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন রকিব হোসেন

আপনাকে অনেকেই রোমান্টিক নাটকের নায়িকা বলেন। এর বাইরে আপনার কাজের পরিধি কম কেনো?
আমি আসলে সব ধরনের গল্প বা চরিত্রেই কাজ করতে চাই। তবে এখন আমার যে বয়স, এ কারণে দর্শকরাই বেশি বেশি রোমান্টিক নাটকে আমাকে দেখতে চান। আর তাদের চাহিদার কথা মাথায় রেখেই নির্মাতারাও আমাকে রোমান্টিক নাটকে বেশি কাজে লাগাচ্ছেন। পাশাপাশি আমি নিজেকে সব চরিত্রের অভিনেত্রী মনে করি। যেমন মাঝে ভিন্ন গল্পের একটি কাজ করেছিলাম। ‘মানুষ’ নামের এ নাটকটির কাহিনী ছিল অটোরিকশায় ফেলে যাওয়া এক যাত্রীর টাকাকে উপজীব্য করে। এতে আমি অভিনয় করেছি অটোরিকশার চালকের মেয়ের চরিত্রে। নাটকে অটোরিকশার চালক ফজলুর রহমান বাবু। গল্পের একপর্যায়ে দেখা যায়, মেয়ের কারণেই বাবা সৎ পথে ফিরে আসেন। এটি আমার অভিনয়জীবনে মনে রাখার মতো একটি কাজ হতে পারে।

ধারাবাহিক নাটকে আপনাকে দেখা যায় না একেবারেই। কারণ কী?
আমি এক ঘন্টার নাটক ও টেলিছবিতে কাজ করতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। ধারাবাহিক নাটকে কাজ করতে গেলে লম্বা সময় দিতে হয়। তখন ভালো ভালো এক ঘন্টার নাটক বা টেলিছবির প্রস্তাব ফিরিয়ে দিতে হবে। আমি এটা করতে চাই না বলেই ধারাবাহিকে কাজ করছি না। আর আমি এই ধারার কাজ করি না প্রায় ছয় বছর হবে। গত বছর আপনি বেশি আলোচিত হয়েছেন ‘বড় ছেলে’ নাটকে কাজ করে। শুনলাম এরপর নির্মাতারা আপনার দিকে আগের চেয়ে বেশি ঝুঁকছেন। এটা কি সত্যি? হ্যাঁ, এখন আমার কাছে আগের চেয়ে বেশি স্ক্রিপ্ট আসছে। তবে আমি আমার কাজের পরিধি বাড়াইনি। আগে যে পরিমাণ কাজ করতাম, এখনো তা-ই করছি।

কাজের পরিধি বাড়াননি কেনো?
আমার কাছে কোয়ালিটি গুরুত্বপূর্ণ। অভিনয়ে আমি আগের চেয়েও যে অনেক বেশি সিরিয়াস, তা দর্শক আমার কাজগুলো দেখলেই বুঝতে পারেন। গেল ঈদে অনেক স্ক্রিপ্ট এসেছিলো আমার কাছে। সেখান থেকে ভালো গল্পের নাটক টেলিফিল্মগুলোতেই আমি কাজ করেছি। আমি কিন্তু দর্শকের কথা ভেবেই ভালো ভালো গল্পে কাজ করেছি। কারণ আমি দর্শকের কারণেই আজকের মেহজাবিন। তাই আগামী দিনে চলার পথে এগিয়ে যেতে হলে দর্শকের কথা মাথায় রেখেই আমাকে কাজ করতে হবে। পাশাপাশি ভালো ভালো গল্পে চ্যালেঞ্জিং চরিত্রগুলোর মুখোমুখি হয়ে নিজেকে ভেঙে অভিনয় করতে হবে আমাকে। সবার সহযোগিতা নিয়েই আমি এগিয়ে যেতে চাই আগামীর পথে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত