শিরোনাম

নাঈম-অহনার হাসির পাত্র

প্রিন্ট সংস্করণ॥বিনোদন প্রতিবেদক  |  ০৪:২৬, মে ২৫, ২০১৯

হাসি যখন কিশোরী তখন প্রেমে পড়েছিল ইমরানের। সে এখন সব পাত্রের ভেতর ইমরানকে খুঁজতে যায়। কারো মধ্যেই তাকে না পেয়ে হতাশ হয়ে পাত্র রিজেক্ট করে। লাকি সেভেন পাত্র হিসেবে হাসির সাথে দেখা করতে আসে ফাহমি। একটা অ্যাডফার্মে কপি রাইটার হিসেবে কাজ করা ফাহমি বোকা-সোকা মানুষ। তার জীবনের ব্রত-ঘুমানো এবং ঘুমানো।

এ অবস্থায় প্রেম করা কিংবা বিয়ে দুটোই তার অনেক ঝক্কি-ঝামেলার কাজ মনে হয়। মেয়ে সে দেখতে এসেছে কেবল বাড়ির চাপে পড়ে। জানে কোনো মেয়েই তার পছন্দ হবে না। কিন্তু ঘটে উল্টো। হাসিকে দেখে সে প্রেমে পড়ে যায়। ওদিকে হাসির ঠিক একইভাবে পছন্দ হয় না পাত্র। ফাহমি তা জানার পর ভেঙে পড়ে।

তবে তিনদিন পর শুরু হয় ফাহমির নতুন জীবন। ফাহমি তার স্বভাবসুলভ আলসেমি ছেড়ে এক অতি ব্যস্ততার জীবন শুরু করে। কিন্তু কিছুতেই কিছু হয় না। হাসির মন পায় না ফাহমি। হতেও পারে না হাসির পাত্র। সে সিদ্ধান্ত নেয় তিব্বত চলে যাবে। সেখানে গিয়ে ধ্যানে বসবে। ওদিকে ফাহমির এই অবস্থার খোঁজ খবর নিয়মিত পেতে থাকে হাসি। তবে তিব্বত যাওয়ার কথা শুনে সে আর নিজেকে ধরে রাখতে পারে না।

এমনই গল্পে নির্মিত হয়েছে বিশেষ নাটক ‘হাসির পাত্র’। কলিন রড্রিকের রচনা নাটকটি পরিচালনা ফিরোজ কবির ডলার। নাটকে হাসি চরিত্রে অভিনয় করেছেন অহনা রহমান। তার বিপরীতে ফাহমি চরিত্রে দেখা যাবে এফ এস নাঈমকে। আসছে ঈদে দীপ্ত টেলিভিশনে প্রচারের জন্য নির্মাণ করা হয়েছে নাটকটি। এমনটাই জানান নাঈম।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত