শিরোনাম

ইমরানের স্বপ্ন বিশাল

প্রিন্ট সংস্করণ॥বিনোদন প্রতিবেদক  |  ০৪:০০, মে ২৩, ২০১৯

‘শুরুটা হয়েছিল অনার্সে ভর্তি হওয়ার পর। মিডিয়ার সঙ্গে জড়িত আমার কিছু বন্ধু ছিল। তাদের সঙ্গে একদিন একটি কাজ দেখতে গিয়েছিলাম। দেখতে গিয়ে একটা কৌতূহল জন্মেছে।

সেই কৌতূহল থেকেই কাজ শুরু করা। তারপর পরিচিত কয়েকজনের মাধ্যমে ফটোশুট করি। সেগুলো বিভিন্ন মডেল এজেন্সিতে জমা দেই। তারপরই কয়েকটি বিজ্ঞাপনে কাজ করি।’ মিডিয়ায় পথচলার শুরুটা জানতে চাইলে এমনটাই বলেন শোবিজের নতুন মুখ ইমরান আহমেদ।

নরসিংদীতে বেড়ে ওঠেন ইমরান। উচ্চ মাধ্যমিক সম্পন্ন করে চলে আসেন ঢাকায়। ২০১৪ ভর্তি হন স্নাতকে। শুরু করেন মিডিয়ার পথচলা। স্বপ্ন দেখেন অনেকদূর হাঁটার। সম্প্রতি রাজু চৌধুরী পরিচালিত ‘স্বপ্ন’ ছবিতে অভিনয় করেন ইমরান। ছবির চিত্রনাট্য ও সংলাপ লিখেছেন রাজু চৌধুরী নিজেই।

ঢাকার অদূরে গাজীপুরে প্রথম লটের চিত্রায়ণ করেছেন তিনি। এ প্রসঙ্গে ইমরান বলেন, ‘জায়েদ ভাইয়ের (চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক) মাধ্যমে এফডিসিতে আসি। এসে দেখি এখানে আমার এলাকার অনেক পরিচিত বড় ভাই আছেন। মূলত তাদের উৎসাহেই রাজু স্যারের ছবিতে অভিনয় করা। ঈদের পরে ছবির দ্বিতীয় লটের চিত্রায়ণ শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।’

ছবিতে নিজের চরিত্রটি প্রসঙ্গে ইমরান বলেন, ‘এ ছবিতে সহজ সরল ভদ্র একটি ছেলের চরিত্রে দেখা যাবে আমাকে। আমার চরিত্রের নাম তারেক। আমার বিপরীতে ইশা চরিত্রে অভিনয় করেছেন নওরীন। গল্পে দেখা যাবে, পাশের গ্রামের ইশার সঙ্গে আমার পরিচয় হয়। পরিচয় থেকে বন্ধুত্ব, বন্ধুত্ব থেকে ভালোলাগা। অনেক চেষ্টা করেও কখনো তাকে ভালোবাসার কথাটি বলা হয়নি। এরপর হঠাৎ গল্পে নাটকীয় মোড় আসে।’

নিজের অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র নিয়ে আশাবাদী ইমরান। চলচ্চিত্রের পাশাপাশি মডেলিংয়ে আগ্রহ তার। বেশি কাজ করতে চান বিজ্ঞাপনে। তার ভাষায়, ‘আমি মনে করি আমার মিডিয়ার পথচলা মাত্র শুরু হলো। বুঝে শুনে সিনিয়রদের পরামর্শ নিয়ে কাজ করতে চাই। মিডিয়ার প্রতি যে ভালোলাগা তৈরি হয়েছে সেটা নিয়ে অনেক দূর যেতে চাই। স্বপ্ন বিশাল, দেখা যাক কতটুকু বাস্তবায়ন করতে পারি।’

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত